Beta

বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে নতুন নামে এবারের বিপিএল

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:২৬ | আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:২৪

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বিপিএলের সপ্তম আসর মাঠে গড়ানো নিয়ে বেশ শঙ্কা ছিল। বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছিল না বিপিএল গভার্নিং কাউন্সিলের। তাই কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি ছাড়াই এবারের বিপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বিসিবি নিজেদের অর্থায়নে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে এই টুর্নামেন্টের নাম দেওয়া হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’।

আজ বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিসিবি কার্যালয়ে আসন্ন বিপিএল নিয়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।  

আগামী ৬ ডিসেম্বর মাঠে গড়াবে বিপিএলের সপ্তম আসর। যেখানে আগের মতোই থাকছে সাতটি দল। তবে এখানে থাকছে না কোনো ব্যক্তিগত মালিকানা। নিজের অর্থায়নে প্রতিটি দল পরিচালনা করবে বিসিবি।

এ ব্যাপারে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজিদের সঙ্গে নতুন চুক্তি নিয়ে আমাদের কথা হয়েছে। তাদের যে প্রতিক্রিয়া দেখেছি, সেখানে বেশ কিছু দাবিদাওয়া আছে। যেগুলো আমাদের মূল নিয়মের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। তা ছাড়া কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি এক বছরে দুটি বিপিএল চাচ্ছে না। সব মিলিয়ে আমরা এবার কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি ছাড়াই বিপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

২০২০ সালে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে একাধিক টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সেই সঙ্গে বিপিএলের সপ্তম আসরকেও যুক্ত করে নিয়েছে বিসিবি।

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীকে উৎসর্গ করে নাম দেওয়া হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। পাপন বলেন, ‘আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী। কাজেই বঙ্গবন্ধুকে উৎসর্গ করে এবারের বিপিএল আমরা বঙ্গবন্ধুর নামে আয়োজন করব, এবার কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিকেই দিচ্ছি না। নাম হবে বঙ্গবন্ধু বিপিএল।’

নতুন নিয়মে তাহলে কীভাবে দল সাজানো হবে? এ ব্যাপারে বিসিবি সভাপত বলেন , ‘আগে যে দলগুলো ছিল সব আগের মতোই থাকবে। শুধু মালিকানায় থাকবে আমাদের ম্যানেজমেন্ট। ক্রিকেটার থাকা- খাওয়াসহ সব খরচ আমাদের অর্থায়নে হবে। আশা করি, যে ফ্র্যাঞ্চাইজগুলো এই আসর আয়োজন করতে রাজি ছিল না, তারা খুশি হবে। আর যারা আর্থিক ক্ষতির কথা বলেছিল তারাও খুশি হবে।’

তা ছাড়া বিপিএলে দলগুলোর নামের ক্ষেত্রেও খুব পরিবর্তন আসবে না বলে উল্লেখ করেন বোর্ড প্রধান। তাঁর ভাষ্য, ‘দলগুলোর নাম স্পন্সরের উপর নির্ভর করবে। আমাদের চেষ্টা থাকবে আগের মতোই রাখার। স্পন্সগুলো যদি চায় বিদেশ থেকে দামি কোচ বা ক্রিকেটার আনতে পারবে। আগামী বছর এই নিয়মেরও পরিবর্তন আসতে পারে। এটা শুধু সপ্তম বিপিএলের জন্য। তাতে আমরা মালিক পক্ষগুলোর সঙ্গে আলোচনার সময় পাব। কারণ এখন তাদের যেসব দাবি-দাওয়া আছে সেসব কিছু মানা সম্ভব নয়। এই সময়ে তাদের দাবি, লাভ-ক্ষতি সব আমাদের শুনতে হবে, বুঝতে হবে এরপর বাকি সিদ্ধান্ত।’

Advertisement