কাজলী নদীর তীরে

যেকোনো ভ্রমণে সকালটা যদি সুন্দর, মন ভালো করা আর নতুন কিছু দেখে উচ্ছ্বসিত হওয়ার মতো না হয়, সেদিনের সে ভ্রমণ আর মনের মতো হয়ে ওঠে না। আগের দিন মেহেরপুর পৌঁছেছিলাম প্রায় সন্ধ্যা নামার মুখে। এক সহকর্মীর বাড়ি সেখানে হওয়ায় দারুণ ব্যালকনিসহ একটা হোটেল রুম পেয়ে গিয়েছিলাম শুরুতেই। পরে সেই সহকর্মীর আতিথ্যে রাতে ভরপুর খাবার আর মেহেরপুরের মিষ্টি খেয়ে মনপ্রাণ মিঠে করে রুমে ফিরে ফ্রেশ হয়ে বিশ্রাম। সহকর্মী...