Beta

২০১৮

সাংস্কৃতিক অঙ্গনে উল্লেখযোগ্য অর্জন

২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:৫৯

পার্থ সনজয়

সম্মাননাটা ২০১৫ সালের। তবে সংবাদটা এলো ২০১৮ সালের অক্টোবরে। সাংস্কৃতিক অঙ্গনে বিশেষ অবদানের জন্য ভারত সরকারের ‘টেগোর অ্যাওয়ার্ড’ অর্জন করেছে বাংলাদেশের অন্যতম সাংস্কৃতিক সংগঠন ছায়ানট। প্রতিষ্ঠানটিকে সম্মাননা স্মারকের সঙ্গে দেওয়া হচ্ছে নগদ এক কোটি রুপিও।

রবীন্দ্রনাথ ছায়ানটের সংগ্রামের সাথী। গত ছয় দশক তাঁর মানবতাবাদের চর্চাই করে গেছে ছায়ানট। সেই চর্চাই প্রতিষ্ঠানটিকে এনে দিয়েছে ভারতের সম্মানজনক এই 'টেগোর অ্যাওয়ার্ড ফর কালচারাল হারমনি-২০১৫'। ছায়ানটের এমন অর্জনে প্রতিষ্ঠানটিকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর নেতৃত্বাধীন একটি জুরি বোর্ড বাছাই করেছে ছায়ানটকে।

মূলত বাংলা সংস্কৃতি, সাহিত্য ও রবীন্দ্রসংগীতের চর্চাকে বাংলাদেশ ও বিশ্বের দরবারে পৌঁছানো এবং জনপ্রিয় করে তোলার ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় ভারত সরকার ছায়ানটকে এ সম্মানে ভূষিত করল। এর আগে টেগোর অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন পণ্ডিত রবিশঙ্কর ও জুবিন মেহতা। আন্তর্জাতিক রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর পুরস্কার বা ‘টেগোর অ্যাওয়ার্ড’ হলো কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫০তম জন্মবার্ষিকীতে চালু করা একটি গুরুত্বপূর্ণ সম্মাননা। সাংস্কৃতিক সম্প্রীতির মূল্য রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ভারত সরকার ২০১১ সালে পুরস্কারটি প্রবর্তন করে।

সার্ক চলচ্চিত্র উৎসবে হালদার জয়জয়কার

২২ থেকে ২৭ মে শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বোতে চলা ‘৮ম সার্ক চলচ্চিত্র উৎসবে’ সেরা চলচ্চিত্র ছাড়াও সেরা চিত্রগ্রাহক, সেরা সম্পাদক ও সেরা আবহ সংগীতের সম্মান জিতেছে তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ছবি ‘হালদা’।

লোকোর্নো চলচ্চিত্র উৎসবে বাংলাদেশ

উৎসবের ওপেন ডোর্স হাবে ‘সিএনসি অ্যাওয়ার্ড’ জিতেছেন তরুণ নির্মাতা মাহাদী হাসান। রুবাইয়াত হোসেন প্রযোজিত তার ‘স্যান্ড সিটি’ ছবিটি জিতে নেয় এই সম্মান। এ ছাড়া লোকোর্নো উৎসবে ‘গোল্ডেন লেপার্ড’ জেতা ‘আ ল্যান্ড ইমাজিনড’ এ অভিনয় শিল্পী ও ক্রু হিসেবে কাজ করেছেন বাংলাদেশের নির্মাতা ইশতিয়াক জিকো। ছবিটির পরিচালক সিঙ্গাপুরের ইয়া সিয়াও হুয়া।

বিসর্জনে জয়ার অর্জন

জিও ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস পেয়েছেন অভিনেত্রী জয়া আহসান।  কৌশিক গাঙ্গুলির ‘বিসর্জন’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রীর সম্মাননা অর্জন করেন বাংলাদেশের এই অভিনেত্রী। ‘বিসর্জন’ ছবির জন্য তিনি সমালোচক এবং জনপ্রিয়—দুই ক্যাটাগরিতেই ‘সেরা অভিনেত্রী’র মনোনয়ন পেয়েছিলেন। পুরস্কার জিতেছেন জনপ্রিয় বিভাগে। এই ছবির জন্য জয়া ‘বেঙ্গল ফিল্ম জার্নালিস্টস অ্যাসোসিয়েশন অ্যাওয়ার্ড’ও জিতেছেন এই বছর।

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে আরো সাফল্য

রাশিয়ার ২০তম ‘ইন্টারন্যাশনাল ফেস্টিভ্যাল অব ডিটেকটিভ ফিল্মস’-এ ফিচার ফিল্ম বিভাগে ‘স্পেশাল মেনশন’ জিতেছে আশরাফ শিশিরের ‘গোপন-দ্য ইনসাইডার’। কাজাখস্তানে ১৪তম ‘ইউরেশিয়া আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে’ স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবির প্রতিযোগিতা বিভাগে ‘গ্রাঁ প্রি’ জিতেছে সুবর্ণা সেঁজুতির ‘মীনালাপ’। ছবিটি এ বছর আরো দুটি আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতেছে।

এ ছাড়া দক্ষিণ কোরিয়ার বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে ‘এশিয়ান প্রজেক্ট মার্কেটে’ জায়গা করে নিয়েছে চলচ্চিত্রকার আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ’র চলচ্চিত্র ‘আই সি ওয়েভস’।

সম্মাননা

স্পেনের সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা ‘রয়েল স্প্যানিশ অর্ডার অব মেরিট’-এ ভূষিত হয়েছেন চিত্রশিল্পী মনিরুল ইসলাম।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় জগত্তারিনী পদকে ভূষিত করেছে ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে।

কলকাতায় ‘১৭তম টেলিসিনে অ্যাওয়ার্ড’-এ আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়েছে অভিনেত্রী ববিতাকে।

মিস ওয়ার্ল্ডে বাংলাদেশের সেরা সাফল্য

মিস ওয়ার্ল্ড সুন্দরী প্রতিযোগিতায় সেরা ৩০-এ স্থান পেয়ে এই প্রতিযোগিতায় সেরা সাফল্য দেখিয়েছেন বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী প্রতিযোগী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। এর আগে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় ২০১৭ সালে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন জেসিয়া ইসলাম। তার আগে বাংলাদেশ থেকে ২০০১ সালে ৫১তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন তাবাসসুম ফেরদৌস শাওন।

বাংলাদেশ থেকে ১৯৯৪ সালে প্রথম বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নেন আনিকা তাহের। এরপর ইয়াসমিন বিলকিস সাথী (১৯৯৫), রেহনুমা দিলরুবা চিত্রা (১৯৯৬), শায়লা সিমি (১৯৯৮), তানিয়া রহমান তন্বী (১৯৯৯) ও সোনিয়া গাজী (২০০০) মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন।

Advertisement