Beta

মৌ এর ‘শেষ উপন্যাস’

১৪ মার্চ ২০১৯, ১৭:২৬

ফিচার ডেস্ক
‘শেষ উপন্যাস’ নাটকের একটি দৃশ্যে মৌ। ছবি : সংগৃহীত

নারীবাদী লেখিকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাদিয়া ইসলাম মৌ।  তাঁর চরিত্রের নাম ত্রপা নাজনিন। নাটকের নাম ‘শেষ উপন্যাস’। জাহিদ মাহমুদের গল্পে এর চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন অর্ক মোস্তফা।

মৌ ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন শাহদত হোসেন, সীমানা,সৌমিত্র, নিপা প্রমুখ। নাটকটি আগামী শনিবার রাত ৯টা ৫ মিনিটে এনটিভিতে প্রচারিত হবে।

নাটকটি সম্পর্কে নির্মাতা অর্ক মোস্তফা বলেন, ‘সম্পর্কের মূল ভিত্তি ভালোবাসা, বিশ্বাস, ত্যাগ, সমঝোতা। সংসার ভেঙ্গে দেওয়ার শত শত কারণ প্রতি মুহূর্তে আমাদের ঘটে কিন্তু সংসার করব এই একটা মাত্র কারণে হয়তো হাজারটা সংসার টিকেও যায় প্রতিদিন। মানুষ ভুল করে, ভুল তার মজ্জাগত। ভুল করে মানুষ অজ্ঞাতে, জ্ঞাতে, বিশেষ কারণে অথবা কোনো দুর্বল মুহূর্তে। এই ভুলগুলো দিয়েই কি সম্ভব একটা সম্পূর্ণ মানুষকে বিচার করা? আমাদের নাটকে আমরা তারই অনুসন্ধান করব।’

‘শেষ উপন্যাস’-এর গল্পে দেখা যাবে, ‘নারীবাদী লেখিকা ত্রপা নাজনিনের বাড়িতে মাস ছয়েক আগে ভাড়াটে হয়ে আসে ফরহাদ ও তরণী নামের একজোড়া নতুন দম্পতি। তরণী ত্রপার লেখার প্রচণ্ড ভক্ত তার সব বই দু-তিনবার করে পড়া। ফরহাদ ব্যস্ত সারাদিন অফিসের কাজে। নিঃসঙ্গ তরণী প্রায়ই হানা দেয় ত্রপার দরজায়। প্রথম দিকে পাত্তা না দিলেও সহজ সরল তরণী জলচ্ছ্বাসের মতো এক সময় ঢুকে যায় ত্রপার অন্দরমহলে। ভিন্ন জগতের দুই নারী হলেও তাদের এক করে দেয় নিঃসঙ্গতা। ত্রপা ও তরণীর মেলামেশা ফরহাদ ঠিক সহজ চোখে নেয় না। বিতর্কিত এই নারী লেখিকাকে নিয়ে আর দশজন মানুষের মতো তারও ধারণা একই। তরণীকে বারবার নিষেধ করে ফরহাদ ত্রপার সাথে সম্পর্ক রাখতে। তারপরও বিবাহিত জীবনে আপাত সুখী তরণী ফিরে আসে ত্রপার কাছে। একদিন প্রচণ্ড রাগে ফরহাদ তরণীকে বলে দেয় ত্রপা নাজনিনের রহস্যঘেরা অতীত।’

Advertisement