Beta

২০ মিনিট ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় অভিনেতা!

০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:৫৩

‘সতর্ক সংকেত’ নাটকের একটি দৃশ্যে সুজাত শিমুল। ছবি : সংগৃহীত

‘তোমরা বাবারা এমন কেন?’ স্বল্পদৈর্ঘ্য ছবিটিতে ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় অভিনয় করে আলোচিত হয়েছিলেন অভিনেতা সুজাত শিমুল। ছবিতে তাঁর অভিনীত বাবা চরিত্রটি প্রশংসিত হয়। এর রেশ না কাটতেই সম্প্রতি ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় একটি নাটকে অভিনয় করেছেন সুজাত শিমুল। নাটকটিতে কাজের অভিজ্ঞতা ও অন্যান্য অনেক বিষয়ে এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি।

এনটিভি অনলাইন : আবারও ট্রাফিক পুলিশের চরিত্রে অভিনয় করলেন। কেমন ছিল শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা?

সুজাত শিমুল : ভিন্নরকম অভিজ্ঞতা হয়েছে। এবার সত্যি সত্যিই ট্রাফিক পুলিশ হয়ে রাস্তায় দায়িত্ব পালন করেছি। পুরো বিষয়টা খুলে বলছি। আজিমপুর রোডে আমরা শুটিং করেছি। নাটকের নাম ‘সতর্ক সংকেত’। আমি যখন শুটিং শুরু করি তখন দায়িত্বরত দুজন ট্রাফিক পুলিশ ছিলেন। শুটিং যাতে প্রাণবন্ত হয় এজন্য আমি রাস্তায় গিয়ে ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্ব পালন করা শুরু করি। আর দায়িত্বরত সেই ট্রাফিক পুলিশ দুজন একটু দূরে ছিলেন। শুটিং চলাকালীন একজন ওসি আমার সামনে এলে তাঁকে আমি স্যালুট দেইনি। তিনি খুব বিস্মিত হন। উনি মনে মনে ক্ষেপে যাচ্ছিলেন। বিষয়টা বুঝতে পেয়ে আমি তাঁকে বলি, ‘আমি আর্টিস্ট। অভিনয় করছি।’ তখন তিনি আমার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে চলে যান। টানা ২০ মিনিট আমি রাস্তায় ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্ব পালন করেছিলাম।

এনটিভি অনলাইন : শুটিংয়ের আগে বিশেষ কোনো প্রস্তুতি ছিল?

সুজাত শিমুল : একজন ট্রাফিক পুলিশ যেভাবে কথা বলে সেই বিষয়গুলো আমি অনুসরণ করেছি। শুটিংয়ে ট্রাফিক পুলিশের বাঁশি ব্যবহার করেছিলাম। আমরা একজন ট্রাফিক পুলিশের কাছ থেকে বাঁশিটি নিয়েছি। তবে এই চরিত্রে অভিনয় করা বেশ চ্যালিঞ্জিং ছিল। কাজটা মোটেও সহজ  ছিল না। ‘তোমরা বাবারা এমন কেন?’ ছবিতে এক ধরনের সামাজিক বার্তা ছিল। আর ‘সতর্ক সংকেত’ নাটকটিতে ট্র্যাজেডি দেখানো হবে। দুটি দুই রকম কাজ হয়েছে।

এনটিভি অনলাইন : এখন কী নিয়ে ব্যস্ত?

সুজাত শিমুল : চলতি মাসে থাইল্যান্ডে আমার ১০টি নাটকের শুটিং করার ছিল। কিন্তু  আমি  থাইল্যান্ডে যেতে পারিনি। দূতাবাস থেকে যখন আমাকে কল করা হয়েছিল  তখন আমি ফোন রিসিভ করতে পারিনি। যথাসময়ে তাই ভিসাও পাইনি। যেহেতু থাইল্যান্ডে শুটিংয়ের জন্য সব ডেট দিয়েছিলাম তাই নতুন নাটকের শুটিং এখন নেই। তবে কিছুদিনের মধ্যে আবারও নাটকের শুটিংয়ে ফিরছি। এরইমধ্যে বেশকিছু চিত্রনাট্য হাতে পেয়েছি।

এনটিভি অনলাইন : টিভি নাটকের পাশাপাশি চলচ্চিত্র ও মঞ্চ নাটকেও আপনি অভিনয় করছেন। এত সময় পান কখন?

সুজাত শিমুল : সবকিছু সামলে নিতে হয়। তবে মঞ্চ নাটকে আমি যে চরিত্রগুলোতে অভিনয় করি সেই চরিত্রের জন্য আর  আর্টিস্ট রয়েছে। আমি কোনো কারণে না করতে পারলে সমস্যা হয় না।

এনটিভি অনলাইন : শেষ প্রশ্ন। আপনার অভিনীত মুক্তির অপেক্ষায় কয়টি চলচ্চিত্র আছে?

সুজাত শিমুল : বেশ কিছু ছবি রয়েছে। এর মধ্যে সম্প্রতি শেষ করেছি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘যতি একদিন’ ছবিটি। এখানে আমাকে একজন কমেডিয়ান হিসেবে দর্শক দেখতে পাবেন। এ ছাড়া ‘আলাগা নোঙর’ ও ‘ঘুণ্টিঘর’ ছবি দুটি মুক্তির অপেক্ষায়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement