Beta

হিজাব পরেই মিস ইংল্যান্ডের ফাইনালে সারা

০৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১৭

অনলাইন ডেস্ক
মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতার রানার্স-আপ সারা ইফতেখার। ছবি : সংগৃহীত

২০ বছর বয়সী সারা ইফতেখার, যুক্তরাজ্যের পশ্চিম ইয়র্কশায়ারে আইন বিষয়ে লেখাপড়া করছেন। তিনিই প্রথম মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগী, যিনি হিজাব পরেই এ সুন্দরী প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে উঠেছেন। তবে ফাইনালে সুন্দরীর মুকুট পরেছেন আলিশা কাউয়ি। রানার্স-আপ হয়েছেন সারা।

সারা ইউনিভার্সিটি অব হাডার্সফিল্ডে আইন বিষয়ে পড়ছেন। মিস হাডার্সফিল্ড-২০১৮ নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

এর আগেও অনেক প্রতিযোগী হিজাব পরে মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন, কিন্তু কেউ এখন পর্যন্ত ফাইনালে যেতে পারেননি। সারা ইফতেখারই প্রথম, যিনি ফাইনালে উঠেছেন।

সারা ইফতেখার বলেছেন, বিশ্বব্যাপী বঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করতে চান তিনি। এজন্য একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানও গড়তে চান। মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার অন্যতম কারণও এটাই। মিস ইংল্যান্ড নির্বাচিত হলে তিনি শিশুদের জন্য তহবিল গঠন করতে চান।

মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতার রানার্স-আপ সারা ইফতেখার। ছবি : সংগৃহীত

সারা বলেন, ‘মিস ইংল্যান্ড-২০১৮ প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছি এটা দেখাতে যে, সৌন্দর্যের কোনো সংজ্ঞা হয় না, প্রত্যেকেই যার যার মতো সুন্দর— ওজন, রং ও গঠন সব নিয়েই।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সারা ইফতেখারের প্রশংসা করছেন অনেকেই, যদিও কিছু বৈষম্যমূলক মন্তব্যও তিনি পেয়েছেন।

একজন টুইটারে লিখেছেন, ‘অনেকে রাগ করছে, মুসলিম হয়ে মিস ইংল্যান্ড জিতবে? ব্যক্তিগতভাবে আমি এ বৈচিত্র্য দেখে খুশি। তাঁর সৌন্দর্যকে উদযাপন করা দরকার।’

আরেকজন লিখেছেন, ‘অসাধারণ ব্যাপার। এ বছর প্রথমবারের মতো হিজাব পরা মুসলিম শিক্ষার্থী মিস ইংল্যান্ডের ফাইনালে উঠেছেন। এখন উদযাপনের সময়।’

শুধু সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণই সারা ইফতেখারের একমাত্র সাধনা নয়, সেই ১৬ বছর বয়সে তিনি পোশাক ব্যবসা শুরু করেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement