Beta

শুটিং সন্দেশ

সিকান্দার বক্সের সেটে বিদায়ের সুর

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১৫:৪০ | আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১৯:২২

অভিনেত্রী রোবেনা রেজা জুঁই ও সামিহা খানের বিয়ে। একই দিনে তাঁরা বিয়ে করতে যাচ্ছেন। তাঁদের দুজনের পাত্র আ খ ম হাসান ও  আরফান আহমেদ। বিয়ের সাজগোজ নিয়ে তাঁরা দুজনেই অনেক ব্যস্ত। তানিয়া আহমেদ তাঁদের সাজগোজের দেখাশোনা করছেন। তাঁদের দেখে বোঝার উপায় নেই যে এটা কোনো নাটকের শুটিং স্পট। বলছি  ‘সিকান্দার বক্স এখন নিজ গ্রামে’ নাটকের শুটিং স্পটের কথা। গতকাল পুবাইলে নাটকটির শুটিং হচ্ছিল। শুটিং স্পটে ঢুকতেই মনে হলো এটা তো বিয়েবাড়ি। প্রচণ্ড গরম। তারপরও সবার মাঝে উৎসবের আমেজ। হাসিমুখে ভালোভাবে সেজে সবাই অভিনয় করছেন।

অভিনেত্রী শখ নিজের মেকআপ নিজেই নিচ্ছেন। নাটকে তাঁর ননদের বিয়ে তাই নিজের পোশাক ও সাজের ব্যাপারে অনেক সচেতন তিনি। একটু পরপর তানিয়া আহমেদকে শখ বলছেন, ‘আপু, আমাকে কেমন লাগছে?’ মোশাররফ করিমও পরেছেন পাঞ্জাবি। নিজের বোনের বিয়ে বলে কথা। বিয়ের দুই পাত্র আরফান আহমেদ ও আ খ ম হাসান বর বেশে মেকআপ রুমের আশপাশে ঘুরছেন। কিন্তু তাঁরা দুজনেই নিশ্চুপ। স্পটে শুধু হাঁটাহাঁটি করছেন। এদিকে চেয়ার নিয়ে খুব মন খারাপ করে বসে আছেন অভিনেতা সালাউদ্দিন লাভলু। মন খারাপের কারণ কী জিজ্ঞাসা করতেই তিনি বলেন, ‘সিকান্দার বক্স সিরিজের নাটকগুলো আমার অনেক প্রিয়। নাটকটি শেষ হয়ে যাচ্ছে বলে ভীষণ খারাপ লাগছে আমার। আর এবারের পর্বে আমাকে দেখাও যাবে না। আমার শুটিং নেই, তারপরও সবার টানে আমি এখানে বসে আছি। আজ রাতে হাসের মাংস রান্না করা হবে। ইউনিটের সবাই মিলে আমরা মজা করে খাব। শুটিংয়ের সময় পরিবারকে ছেড়ে থাকতে হয়। তাই আমরা শিল্পীরা সবাই কিন্তু পরিবারের মতো হয়ে থাকি। যদি শুটিং স্পটটাকে দ্বিতীয় বাড়ি না ভাবতে পারি, তাহলে কখনই কাজ করে আরাম পাব না।’
সালাউদ্দিন লাভলুর সঙ্গে একমত তানিয়া আহমেদ। তিনি বলেই উঠলেন, ‘সিকান্দার বক্সের ইউনিট পরিবারের মতো নয়, আমি এটাকে পরিবারই বলব। অনেক আবেগ, ভালোবাসা জড়িয়ে আছে এই নাটকটি ঘিরে।’

সামিহা খানও বললেন একই রকম কথা, ‘আমি তো মানতেই পারছি না নাটকটি শেষ হচ্ছে’। নাটকে তাঁর বিয়ে উপলক্ষে মায়ের বিয়ের শাড়ি নিয়ে এসেছেন তিনি। সামিহা জানালেন, ‘অন্য নাটকের শুটিং হলে মা, তাঁর বিয়ের শাড়ি আমাকে দিত না। সিকান্দার বক্সের কথা শুনতেই একবাক্যে তিনি আমাকে শাড়ি দিয়েছেন। নাটকটি আমাদের বাসার সবাই দেখেন।’

স্পটে বিয়েবাড়ির আমেজ নিয়ে সবাই ঘোরাঘুরি করছেন। শরবত হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন অভিনেত্রী রিমু রোজা খন্দকার। সেটে গান বাজছে। পরিচালক সাগর জাহান বিয়ের আসন ঠিকঠাকমতো করে সাজানো হয়েছে কি না সেটা দেখছেন। অনেক শিল্পীকে একসঙ্গে নিয়ে কাজ করছেন। কিন্তু চেরারায় তাঁর চাপের কোনো লক্ষণ নেই। শটের ফাঁকে ফাঁকে শিল্পীদের সঙ্গে জমিয়ে গল্পও করছেন। অভিনেতা মোশাররফ করিম, ফারুক আহমেদ, আ খ ম হাসান, আরফান আহমেদ সবাইকে নিয়ে গল্প করছেন তিনি। এদিকে সিকান্দার বক্স নাটকে প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন  ইরেশ যাকের। সেটে এসে নিজের গাড়িতে ঘুমিয়ে পড়েছেন তিনি। জানালেন, নাটকে তাঁর দৃশ্য খুবই কম। তাই বিশ্রাম নিয়ে নিয়ে কাজ করছেন। একদম চাপ নেই। তাই ঘুম। 
অভিনেত্রী শামীমা নাজনীনও প্রথমবারের মতো এই নাটকে কাজ করছেন। তিনি বললেন, ‘সিকান্দার বক্স নাটকটি আমি দেখেছি। আমি ময়মনসিংহের মেয়ে। নাটকের ভাষাও ময়মনসিংহের। অনেকদিন পর নিজের আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলছি। নাটকের পুরো পরিবেশ অনেক ভালো লাগছে।’

অভিনেত্রী শখ শটের ফাঁকে ফাঁকে সবার সঙ্গে সেলফি তুলছেন। নাটক যেহেতু শেষ হয়ে যাচ্ছে তাই স্মৃতিগুলো তিনি তাঁর ক্যামেরার ফ্রেমে বন্দি করে রাখতে চাচ্ছেন। যখন নাটকের নায়ক মোশাররফ করিমের (সিকান্দার বক্স) সঙ্গে সেলফি তুললেন শখ, তখন আশপাশের সবাই বেশ মুগ্ধ হয়ে দৃশ্যটি দেখলেন। শুধু সেলফি তোলা নিয়ে ব্যস্ত নন, অভিনয়ের বিষয়েও বেশ মনোযোগী তিনি। নাটকের চিত্রনাট্য বারবার পড়ছেন। তাঁকে দেখে বোঝাই যাচ্ছে অভিনয়ের ভেতরে ঢুকে গেছেন তিনি। এখন তিনি শখ নন,  নাটকের চরিত্র খেয়া।

সবার সঙ্গে গল্প করতে করতে দুপুর গড়িয়ে সন্ধ্যা, তারপর রাত কখন এতটা হয়ে গিয়েছে সেটা বুঝতে পারিনি। কিছুক্ষণ পর বিয়ের দৃশ্যের শুটিং শুরু হবে। পরিচালক সাগর জাহান বিয়ে দেখে যাওয়ার জন্য বললেন। কিন্তু সেই সময় আর হলো না। সবাইকে বিদায় জানিয়ে আমরা বিদায় নিলাম। গাড়িতে ওঠার পরও আমরা দূর থেকে শুনতে পেলাম স্পটে বিয়ের গান বাজছে, ‘ মালেকা বানুর দেশেরে, বিয়ার বাদ্য আল্লাহ বাজেরে...’

Advertisement