Beta

ভালোই চলছে ‘সুলতানা বিবিয়ানা’

০১ এপ্রিল ২০১৭, ১৭:২৪ | আপডেট: ০১ এপ্রিল ২০১৭, ১৭:২৫

সারা দেশে ৫১টি সিনেমা হলে চলছে হিমেল আশরাফ পরিচালিত ‘সুলতানা বিবিয়ানা’। ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন বাপ্পি ও আঁচল আঁখি। গতকাল শুক্রবার থেকে সিনেমা হলে বেশ দর্শকসমাগম ছিল। বেশ কিছু হলের কর্তৃপক্ষও ছবিটির বিষয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে।

মিরপুর সনি সিনেমা হলে ম্যানেজার আবদুল সামাদ এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘গতকাল সকালের শো-তে দর্শক একটু কম থাকলেও দুপুর থেকে হাউসফুল ছিল প্রেক্ষাগৃহ। রাতেও দর্শকপূর্ণ ছিল সিনেমা হল। আমরা মনে করেছিলাম, শুক্রবার যেহেতু ছুটির দিন তাই হয়তো দর্শক বেশি। আজ শনিবারও কিন্তু দুপুর থেকেই দর্শক হলে আসছে। আমরা মনে করেছিলাম, পয়লা বৈশাখের আগে কোনো ছবিতে ব্যবসা পাব না। এখন দর্শক দেখে মনে হচ্ছে রীতিমতো পয়লা বৈশাখের আমেজ!’

সামাদ আরো বলেন, ‘আসলে সিনেমা হলের দর্শকরাই ছবির আসল প্রচারণা করেন। ছবিটি যদি ভালো লাগে তাহলে তারাই অন্য দর্শক পাঠায়। ছবি জমে ওঠে। আমি নিজেও ছবিটি দেখেছি, অনেক সুন্দর গল্পের একটি ছবি এটি, প্রথম শো দেখেই মনে হয়েছে ভালো ব্যবসা করবে।’

ফার্মগেটে অবস্থিত আনন্দ সিনেমা হলের সহকারী ম্যানেজার ওয়াসিম বলেন, ‘গতকাল থেকেই দর্শক ছবিটি দেখছে এবং প্রশংসা করছে। আজও দর্শক ভিড় করছে, আমাদের তো ছবি দেখতে ভয় করে, কিন্তু দর্শকের আলোচনা শুনে গতকাল ছবিটি দেখেছি। আসলেই ছবিটি ভালো হয়েছে। অনেক দিন পর মনে হলো নিজেদের দেশের গল্পের একটি ছবি দেখছি। গত কয়েক বছর ধরেই আমাদের দেশের ছবিতে যেভাবে তামিল স্টাইল এসে পড়েছে, মনে হয়েছিল বাংলাদেশের ছবি বানানো বোধ হয় পরিচালকরা ভুলে গেছেন। আমি দর্শকদের বলব আপনারা হলে আসুন, ছবিটি ভালো লাগবে।’

মধুমিতা হলের সহকারী ম্যানেজার মোহাম্মদ অহিদ বলেন, ‘গত কয়েক মাসে যে ছবি মুক্তি পেয়েছে তাতে করে বেশ কিছু টাকা ক্যাশ থেকে দিতে হয়েছে, কারণ বিদ্যুৎ ও স্টাফ খরচ টিকেটের থেকে তুলতে পারিনি। গতকাল থেকে দর্শক হলে আসছে। অবশ্য নায়ক বাপ্পির এমনিতেই একটা দর্শক আছে, সঙ্গে আছে সুন্দর একটা গল্প। আমি গত রাতে ছবিটি দেখেছি, আমার কাছে মনে হয়েছে বাপ্পির অভিনয় দেখতে চাইলে এই ছবিটি দেখতে হবে।’

এ ছাড়া ঢাকার এশিয়া, বিজিবি, শাহীন, চিত্রামহল, পুনম, গীত সিনেমা হলেও দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে চলচ্চিত্রটি। এ বিষয়ে ছবির নায়ক বাপ্পি সন্তুষ্টি প্রকাশ করে এনটিভি অনলাইনকে বলেন ‘গতকাল থেকেই অনেক ফোন পাচ্ছি, সবাই উইশ করছেন। বিভিন্ন সিনেমা হল কর্তৃপক্ষ ফোন দিয়ে প্রশংসা করছে। আমি অনেক বেশি কৃতজ্ঞ যাঁরা ছবিটি দেখছেন, কারণ আমাদের দেশের চলচ্চিত্রকে বাঁচাতে হলে আমাদের ছবি দেখতে হবে। আমি ধন্যবাদ দিতে চাই আমার ছবির পরিচালক ও প্রযোজককে, কারণ এমন একটি ছবিতে আমাকে অভিনয় করার সুযোগ করে দিয়েছেন।’

‘ভালোবাসার রঙ’ দিয়ে নিজের চলচ্চিত্রযাত্রাকে রঙিন করেন নায়ক বাপ্পি। সে যাত্রায় সহযাত্রী ছিলেন মাহি। এর আগে অনেক নায়িকার সঙ্গেই জুটিবদ্ধ হয়েছেন বাপ্পী। ধীরে ধীরে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে গড়ে উঠছে তাঁর আলাদা ইমেজ। আর এই ছবিতে বাপ্পির বিপরীতে রয়েছেন নায়িকা আঁচল।

এই ছবিতে বাপ্পি-আঁচল ষষ্ঠবারের মতো জুটি বাঁধলেও হিমেল আশরাফের কিন্তু এটাই প্রথম পরিচালনার কাজ। শাহীন সুমনের ‘জটিল প্রেম’ ছবির মধ্য দিয়ে বাপ্পি ও আঁচল প্রথম জুটিবদ্ধ হন। ছবিটি ব্যবসায়িক সাফল্য পাওয়ার পর নির্মাতারা এই জুটিকে নিয়ে বেশ কয়েকটি ছবি নির্মাণ করেন। যেমন ‘প্রেম প্রেম পাগলামি’, ‘কি প্রেম দেখাইলা’, ‘আজব প্রেম’ ও ‘গুন্ডা : দ্য টেরোরিস্ট’।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement