Beta

নেপালে স্থানীয় সরকার নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোট সম্পন্ন

২৯ জুন ২০১৭, ১১:২৬

আলজাজিরা
স্থানীয় সরকার নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে ভোট দিচ্ছে নেপালের লাখ লাখ মানুষ।

স্থানীয় নৃতাত্ত্বিক জাতিগোষ্ঠীর হুমকি সত্ত্বেও স্থানীয় সরকার নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে পৌর ও গ্রাম পরিষদ প্রতিনিধি নির্বাচনের জন্য ভোট দিয়েছেন নেপালের লাখ লাখ নাগরিক।

স্থানীয় সময় বুধবার অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে ১৫ হাজার ৩৮ পদের বিপরীতে ৬২ হাজার প্রার্থী অংশগ্রহণ করেছে।  নির্বাচন উপলক্ষে সারা দেশে এক লাখ ৬২ হাজার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়োগ করা হয়েছে।

নেপালে গত দুই দশকের মধ্যে এটাই প্রথম স্থানীয় সরকার নির্বাচন। নেপালের নতুন সংবিধান পাসের প্রায় এক বছর পর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। 

নেপালের সাতটি প্রদেশের তিনটিতে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তিনটিতে গত মাসেই নির্বাচন হয়েছে। আর বাকি একটিতে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর নাগাদ নির্বাচন হতে পারে।

প্রায় দুই দশক আগে নেপালে প্রথম স্থানীয় সরকার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

নেপালের দক্ষিণাঞ্চলের নৃতাত্ত্বিক জাতিগোষ্ঠীগুলো এ নির্বাচন বয়কটের ডাক দিয়েছে। তারা তাদের নিজেদের প্রদেশের জন্য আরো ভূখণ্ডের দাবি জানিয়েছে।

এ জাতিগোষ্ঠীর অন্যতম মাধেসি জনগোষ্ঠী জানিয়েছে, নেপালের নতুন সংবিধানের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তাদের জনগোষ্ঠীর জন্য আরো বেশি ভূখণ্ড পাওয়ার কথা। 

দুই বছর আগে নেপালের নতুন সংবিধান গৃহীত হয়। এ সময় স্থানীয় জাতিগোষ্ঠীগুলো তীব্র প্রতিরোধ গড়ে তোলে। এতে রাষ্ট্রীয় বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ৫২ জন নিহত হয়। 

সরকার মাধেসি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে আলোচনার জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এ জন্য সেখানকার ভোট ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। সরকার আশা করছে, মাধেসিদের সঙ্গে এর মধ্যেই সমঝোতায় পৌঁছানো যাবে। 

নির্বাচন কমিশনের মুখপাত্র সূর্য্যপ্রসাদ শর্মা জানান, বৃষ্টির কারণে ঝাপা জেলার ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটগ্রহণ বিলম্বিত হয়েছে। তিনি বলেন, ‘খুব ভোর থেকেই বিপুল ভোটারকে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে ভোটকেন্দ্রে ভিড় করতে দেখা যায়।’  

মুখপাত্র আরো জানান, মে মাসের মাঝামাঝি অনুষ্ঠিত প্রথম ধাপের নির্বাচনে ৭০ শতাংশের বেশি ভোট পড়েছিল।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement