Beta

ভুয়া বিজ্ঞাপন ও সংবাদের বিরুদ্ধে গুগল-ফেসবুকের যুদ্ধ ঘোষণা

১৬ নভেম্বর ২০১৬, ১৪:১২

ইন্টারনেটে বিভিন্ন সাইটে ভুয়া বিজ্ঞাপনের সংখ্যা নেহাত কম নয়। এর সঙ্গে হয়েছে আরো অসংখ্য ওয়েবসাইট, যাদের ভুল ও মিথ্যা সংবাদের ফাঁদে পড়ে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন অসংখ্য মানুষ। এসবই বন্ধ করার জন্য নতুন পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে ইন্টারনেট জায়ান্ট গুগল ও ফেসবুক। এনবিসি নিউজ জানিয়েছে এ খবর।

সদ্যসমাপ্ত মার্কিন নির্বাচনের পর থেকেই আলোচনায় উঠে এসেছে এ বিষয়টি। নির্বাচনের সময় ফেসবুকে ট্রাম্পের পক্ষে পোপ বা অভিনেতা ডেনজেল ওয়াশিংটনের পক্ষপাতবিষয়ক অসংখ্য খবর ভাইরাল হয়।

নির্বাচন চলাকালে ‘ফাইনাল ইলেকশন রেজাল্ট’ লিখে সার্চ দিলে আরেকটি  ভুয়া খবর পাওয়া যেত, যাতে বলা হয় হিলারির থেকে সাত লাখ ভোট বেশি পেয়ে এগিয়ে আছেন ট্রাম্প। এর ফলে অনেকেই ধারণা করছেন, এসব প্রচারণা ও ভুয়া খবর ট্রাম্পের পক্ষে ভোট টেনেছে। তাই গুগল ও ফেসবুক এ ব্যাপারে কঠোর হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গুগল কর্তৃপক্ষ সরাসরি ঘোষণা দিয়েছে, যেসব ওয়েবসাইট তাদের ব্যবহার নীতিমালা মেনে চলবে না, তাদের নিষিদ্ধ করা হবে। অ্যাডসেন্স নেটওয়ার্কের মাধ্যমে এই কাজ করা হবে।

ফেসবুকও এ ব্যাপারে সচেতন হয়ে উঠছে। সাম্প্রতিক এক জরিপে দেখা যায়, ৬০ শতাংশ মার্কিন নাগরিক ফেসবুক থেকেই খবর সংগ্রহ করেন। ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গের ভাষ্যমতে, ভুল ও ঠিক খবর যাচাই করা খুব কঠিন কাজ। তার পরও ফেসবুক কর্তৃপক্ষ চেষ্টা করবে, যতটা সম্ভব সঠিক তথ্য পরিবেশন করার।

বিশ্বে প্রতিদিন প্রায় ১৭০ কোটি মানুষ ফেসবুক ব্যবহার করেন। আর বিখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন গুগলে প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ৪০ হাজার বার বিভিন্ন বিষয়ে সার্চ করা হয়। তাই সঠিক তথ্য প্রচারের জন্য এই প্রতিষ্ঠান দুটির গুরুত্ব অনেক।

Advertisement