Beta

বিমানে ‘গ্যালাক্সি নোট ৭’ নিষিদ্ধ করল যুক্তরাষ্ট্র

১৬ অক্টোবর ২০১৬, ১৮:১৫

স্মার্টফোনের ইতিহাসে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৭-এর মতো বিপর্যয় মনে হয় আর কোনো হ্যান্ডসেটের ক্ষেত্রে হয়নি। এরই মধ্যে স্যামসাং এই ফোনের উৎপাদন বন্ধ ঘোষণা করেছে। সেই সাথে যুক্ত হলো সাম্প্রতিক এক নিষেধাজ্ঞা। যুক্তরাষ্ট্রের কোনো বিমানে এখন যাত্রীরা গ্যালাক্সি নোট ৭ নিয়ে ভ্রমণ করতে পারবেন না। ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া গেছে এ খবর।

যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্টেশন এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। প্রতিষ্ঠানটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, স্যামসাং গ্যালাক্সির অতীত রেকর্ড ফোনটিকে বিমান যাত্রার ক্ষেত্রে হুমকি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। তাই যাত্রীরা এখন থেকে নিজেদের সাথে বা লাগেজে করে এই ফোনটি নিয়ে বিমানে উঠতে পারবেন না।

বাজারে ছাড়ার কিছুদিন পরই স্যামসাং প্রায় ২৫ লাখ ফোন ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়। সেটটির ব্যাটারি বিস্ফোরিত হয় বলে অভিযোগ করেন ব্যবহারকারীরা। বিস্ফোরিত নোট ৭ স্মার্টফোনের বেশ কিছু ভিডিও ও ছবি ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে। 

কিন্তু মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দেখা যায় যখন স্যামসাং কর্তৃপক্ষ এসব ফোন মেরামত করে ফেরত দেওয়ার পরও ব্যাটারি বিস্ফোরণের সমস্যা অব্যাহত থাকে। আপাতদৃষ্টিতে স্যামসাংয়ের এই আগুনে ব্যাটারির কোনো সমাধান প্রতিষ্ঠানটির কাছে নেই। বাধ্য হয়ে গ্যালাক্সি নোট ৭-এর উৎপাদন বন্ধ করার ঘোষণা দেয় কোরীয় এই প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান।

স্যামসাং কর্তৃপক্ষ অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অব ট্রান্সপোর্টেশনের এই নিষেধাজ্ঞায় পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছে। সেই সাথে সকল গ্যালাক্সি নোট ৭ ব্যবহারকারীদের বিমানে চড়ার আগে নিকটস্থ কোনো রিটেইল স্টোরে গিয়ে নোট ৭ ফোনটি ফেরত দিয়ে ক্ষতিপূরণ সংগ্রহ করারও পরামর্শ দিয়েছে।

Advertisement