Beta

আসছে নিকনের মিররলেস ক্যামেরা

০২ এপ্রিল ২০১৫, ১৪:১৯

নিকনের নতুন ক্যামেরা জে-ফাইভ। ছবি : দ্য ভার্জ

নতুন ক্যামেরা জে-ফাইভ নিয়ে বেশ আশাবাদী ক্যামেরা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান নিকন। মিররলেস এই ক্যামেরায় বেশ কিছু নতুন প্রযুক্তি যোগ করা হয়েছে। পরিবর্তন আনা হয়েছে এর ডিজাইনেও।

 

মিররলেস ক্যামেরার বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এতে ভিউফাইন্ডার থাকে না। এ ছাড়া এসব ক্যামেরার জন্য ‘ইন্টারচেঞ্জেবল লেন্স’ থাকে, যেগুলো নির্দিষ্ট মডেলের জন্য তৈরি করা হয়। অন্যান্য ক্যামেরায় এসব লেন্স ব্যবহার করা যায় না। ডিএসএলআর এবং ডিজিটাল ক্যামেরা—দুটোরই সুবিধা পাওয়া যাবে এ ধরনের ক্যামেরায়।

জে-ফাইভে রয়েছে প্রথাগত পিএএসএম ডায়াল, যার মাধ্যমে এক্সপোজার মোড ঠিক করা হয়। রয়েছে আরেকটি কমান্ড ডায়াল, যার মাধ্যমে ছবি তোলার সমন্বয় সাধন করা হয়।

প্রথমবারের মতো ক্যামেরার মনিটরে বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে নিকন। জে-ফাইভের মনিটর টিল্ট করা যাবে, অর্থাৎ ডানে-বাঁয়ে বা ওপরে- নিচে ঘোরানো যাবে। এ ছাড়া মনিটরটি ১৮০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘোরানো যাবে, ফলে এর মাধ্যমে মনিটরে চোখ রেখে সেলফিও তোলা যাবে।

২০ দশমিক ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরাটিতে রয়েছে ১ ইঞ্চি সেন্সর (২ দশমিক ৭ এক্স ক্রপ ফ্যাক্টর)। এর আগের মডেল জে-ফোর ছিল ১৮ দশমিক ৪ মেগাপিক্সেলের। অটোফোকাস পদ্ধতির এ ক্যামেরায় রয়েছে ১৭১টি কন্ট্রাস্ট ডিটেক্ট  ও ১০৫টি ফেজ ডিটেক্ট পয়েন্ট।

নতুন এই ক্যামেরায় যোগ করা হয়েছে ফাইভ এ প্রসেসর, যার মাধ্যমে ২০ এপিএস গতিতে স্টিল ছবি তোলা যাবে। তবে এতে ক্যামেরার ফোকাস পরিবর্তন হবে না। ক্যামেরাটি দিয়ে ফোর কে ভিডিও ধারণ করা যাবে।

তবে জে-ফাইভের বেশ কিছু অসুবিধাও রয়েছে। অল্প আলোয় এই ক্যামেরায় ভালো ছবি তোলা বেশ দুষ্কর।

নিকনের সিনিয়র টেকনিক্যাল ম্যানেজার স্টিভ হেইনার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জকে জানান, এই ক্যামেরা আপনার সব চাহিদা পূরণ করতে পারবে না। কিন্তু দামে আর মানে এটি বাজারের অন্য যেকোনো ক্যামেরার তুলনায় এগিয়ে থাকবে। বিভিন্ন লেন্সের ব্যবহার এবং হালকা বডির কারণে এটি ব্যবহারকারীদের কাছে জনপ্রিয়তা পাবে বলে নির্মাতাদের বিশ্বাস।

লেন্স পরিবর্তনের সুবিধার কারণে ব্যবহারকারী নিজেদের মতো করে দূরের বা কাছের ছবি তুলতে পারবেন। তা ছাড়া আকারে ছোট এবং হালকা হওয়ায় যেকোনো পরিস্থিতিতে ছবি তোলার জন্য সুবিধাজনক হবে ক্যামেরাটি।

১০-৩৩ মিলিমিটার লেন্সের এই ক্যামেরার দাম পড়বে ৪৯৯ ডলার। এ ছাড়া লেন্সভেদে এক হাজার ডলার দাম পড়বে। ক্যামেরাটি পাওয়া যাবে কালো ও রুপালি রঙে। তবে ক্যামেরাটি কবে বাজারে পাওয়া যাবে, তার কোনো নির্দিষ্ট সময় জানানো হয়নি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement