Beta

বাংলাদেশের চিন্তার নাম আফগান স্পিন!

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৯:১৬

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নিজেদের মাঠ, টেস্ট অভিজ্ঞতা কিংবা মাঠের পারফরম্যান্স সবদিক থেকেই আফগানিস্তানের চেয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে। মাঠের লড়াইয়ে টাইগারদের দুর্ভাবনা কেবল আফগানদের বৈচিত্র্যময়  স্পিন আক্রমণ। বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোরও চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এটি। তবে প্রতিপক্ষের স্পিনকে সমীহ করলেও দিন শেষে নিজেদেরই এগিয়ে রাখছেন বাংলাদেশ কোচ।

আফগান শিবিরে বিশ্বসেরা লেগ স্পিনার রশিদ খানের সঙ্গে আছেন কায়েস আহমেদ। এর সঙ্গে নতুন নাম যোগ হয়েছে জহির খান। প্রস্তুতি ম্যাচে বিসিবি একাদশকে রীতিমতো কাঁপিয়ে দিয়েছেন তিনি। ২৪ রানে নিয়েছেন পাঁচ উইকেট। চায়নাম্যান এই বোলারের রানআপ বাকি স্পিনারদের তুলনায় বেশ দীর্ঘ। বলের গতিও একজন স্পিনারের গড় গতির চেয়ে বেশি। সব মিলিয়ে যাকে সামলাতে বেশ কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের।

বাংলাদেশ কোচের মূল চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সফরকারীদের স্পিন। ডোমিঙ্গোর ভাষায়, ‘ওদের (আফগানিস্তানের) স্পিন আক্রমণ আমাদের চিন্তার কারণ। আমরা সবাই জানি সীমিত ওভারের ক্রিকেট তাদের বোলিং আক্রমণ কতটা ভয়ানক। তবে এটা ভিন্ন ফরম্যাট, তারপরও আগামী কয়েকটা দিন তাদের স্পিন আক্রমণ হুমকি হয়ে উঠতে পারে ব্যাটসম্যানদের জন্য।’

অবশ্য প্রতিপক্ষের বোলিং আক্রমণ যতই ভয়ানক হোক ঘরের মাঠে ম্যাচ নিজেদের দিকে থাকবে বলেই মানেন বাংলাদেশ কোচ, ‘গত দুই সপ্তাহ ধরে ছেলেরা অনেক পরিশ্রম করছে। আমি সত্যিই তাদের কর্মক্ষমতা ও পরিশ্রম দেখে সন্তুষ্ট। ধৈর্য ধরে ম্যাচে আমাদের লক্ষ্য স্থির রাখতে হবে। আফগানিস্তানের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে হবে। এটা করতে পারলে ম্যাচটি আমাদের দিকেই থাকবে।’

ডোমিঙ্গো আরো বলেন, ‘আমরা জানি, এটা আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। কিন্তু গত দুই সপ্তাহ আমরা এই চ্যালেঞ্জ জেতার জন্যই প্রস্তুতি নিচ্ছি। ছেলেরা তাদের সেরাটা দিতে মুখিয়ে আছে। আমরা তাদের আক্রমণ ঠেকিয়ে দেওয়ার জন্য আমরা আত্মবিশ্বাসী।’

উল্লেখ্য,  একমাত্র টেস্টে আগামী ৫ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

Advertisement