Beta

আইসিসির হল অব ফেমে শচীন

২০ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৬

স্পোর্টস ডেস্ক

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে আইসিসির হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত হলেন কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার। ভারতের ষষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে এ সম্মান পেলেন তিনি। এর আগে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে সুনীল গাভাস্কার, বিষেন সিং বেদি, কপিল দেব, অনিল কুম্বলে ও  রাহুল দ্রাবিড় অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলেন।

অবশ্য শচীন ছাড়াও একই দিনে এ ক্লাবের সদস্য হলেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক পেসার অ্যালান ডোনাল্ড ও নারী বিশ্বকাপ জয়ী অস্ট্রেলিয়ার ক্যাথরিন ফিজপ্যাট্রিক।

এইড সম্মাননা পেয়ে দারুণ খুশি শচীন বলেন, ‘এটা আমার জন্য এক বিরাট সম্মানের বিষয়।’

ক্রিকেট দুনিয়ায় স্যার ডন ব্র্যাডম্যানের পরই বিবেচিত হয় শচীনের নাম। ৪৬ বছর বয়সী এ ভারতীয় তারকা ওয়ানডে ও টেস্ট ক্রিকেটে বলতে গেলে সব রেকর্ডই নিজের করে নিয়েছেন। ১০০ আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরির মালিক একমাত্র শচীন।

অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার হিসেবে সবার আগে উঠে আসে টেস্ট ক্রিকেটে ৩৩০ এবং ওয়ানডে ক্রিকেটে ২৭৯ উইকেট শিকার করা ‘সাদা বিদ্যুৎ’ খ্যাত ডোনাল্ডের নাম।

নারী ক্রিকেটে অবিস্মরণীয় একটি নাম ফিজপ্যাট্রিক। নারী ক্রিকেটে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী এ তারকা ক্রিকেটার টেস্টে ৬০ এবং ওয়ানডেতে ১৮০ উইকেটের মালিক। তাঁর নেতৃত্বেই অস্ট্রেলিয়া দল তিনবার নারী বিশ্বকাপ জিতেছে।

ক্রিকেট মাঠে শচীনের যত অর্জন :

২০০ টেস্ট, ১৫৯২১ রান এবং ৫১ সেঞ্চুরি।

৪৬৩ ওয়ানডে, ১৮৪২৬ রান, ৪৯ সেঞ্চুরি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১০০ সেঞ্চুরি করা একমাত্র খেলোয়াড়।

বিশ্বকাপে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২২৭৮ রান এবং ছয়টি সেঞ্চুরি।

ভারতের হয়ে ২০১১ বিশ্বকাপ জয়।

ওয়ানডে ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি করা প্রথম ক্রিকেটার।

১৯৯৬ ও ২০০৩ আইসিসি বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী।

টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ব্যাটসম্যান হিসেবে (১৯৯৪-২০১১) ১১৫৭ দিন।

ক্যারিয়ারে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ব্যাটসম্যান হিসেবে (১৯৯৬-২০০৮) ৩৫৪ দিন।

Advertisement