Beta

মোসাদ্দেকের যে রেকর্ড নিয়ে আইসিসি-ক্রিকইনফোর ভুল!

১৮ মে ২০১৯, ১৮:১৫ | আপডেট: ১৮ মে ২০১৯, ১৮:১৮

স্পোর্টস ডেস্ক
ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের জয়ের অন্যতম নায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ২৩ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছেন। খেলা সরাসরি সম্প্রচারের সময়ের তেমনই একটি চিত্র। ছবি : সংগৃহীত

দ্বিপক্ষীয় সিরিজ বাদে এই প্রথম কোনো শিরোপা জিতেছে বাংলাদেশ। ১৯৯৮ সালের ১৭ মে ভারতের হায়দরাবাদে এসেছিল প্রথম ওয়ানডে জয়। ২১ বছর পর সেই গতকাল ১৭ মেতেই বাংলাদেশ পেয়েছে নিজেদের প্রথম শিরোপা। দলের এই সাফল্যে দারুণ অবদান রেখেছেন তরুণ অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তাঁর অসাধারণ সাফল্যে বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা আনন্দে মাতোয়ারা।

তবে মোসাদ্দেক আলোচনায় এসেছেন অন্য আরেকটি কারণে। তিনি হাফসেঞ্চুরি করেছেন ২৩ বল খরচায়। কিন্তু ক্রিকেট-বিষয়ক সংবাদমাধ্যম ইএসপিএন ক্রিকইনফো ও ক্রিকবাজের মতো গুরুত্বপূর্ণ সংবাদমাধ্যম ভুল খবর প্রকাশ করেছে। এমনকি আইসিসির ওয়েবসাইটেও  যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, তাতে এই বাংলাদেশি অলরাউন্ডার নাকি ২০ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছেন।

যদিও ম্যাচের ভিডিওতে গিয়ে দেখায় যায় মোসাদ্দেক ২০ বলে নয় ২৩ বলেই হাফসেঞ্চুরি করেছেন। আর ২৪ বলে দুটি চার ও পাঁচটি ছক্কায় ৫২ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি।

ইএসপিএন ক্রিকইনফোর খবরে প্রকাশ করা হয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ২০ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছেন। ছবি : সংগৃহীত

তবে ২০ বলে হাফসেঞ্চুরি হলে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুত হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড গড়তে পারতেন মোসাদ্দেক। ছাড়িয়ে যেতে পারতেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল ও আব্দুর রাজ্জাককেও।
২০০৫ সালে নটিংহামের ট্রেন্টব্রিজে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২১ বলে হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন আশরাফুল। আর ২০১৩ সালে বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২১ বলেই হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন রাজ্জাক। এই দুজনকে ছাড়িয়ে গেলেন মোসাদ্দেক।
ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পাঁচ উইকেটে হারান মাশরাফিরা। মোসাদ্দেকের পাশাপাশি দলের জয়ে অবদান রাখেন ওপেনার সৌম্য সরকারও। নয়টি চার ও তিনটি ছক্কায় ৪১ বলে ৬৬ রান করেন সৌম্য।

Advertisement