Beta

ভালোবাসার টানেই আবার রিয়ালে জিদান

১৩ মার্চ ২০১৯, ১৩:৫৯

স্পোর্টস ডেস্ক

নয় মাস পর আবার রিয়াল মাদ্রিদে ফিরেছেন জিনেদিন জিদান। রিয়ালে ফিরে নিজের প্রথম প্রতিক্রিয়ায় জিদান জানিয়েছেন,  ভালোবাসার টানেই এই ক্লাবে ফিরেছেন। অনেক নাটকীয়তার পর গতকাল মঙ্গলবার দলটির কোচের দায়িত্বে ফিরেছেন ফ্রান্সের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ের এই নায়ক।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে এ ব্যাপারে এক সংবাদ সম্মেলনে জিদান বলেন, ‘আমাকে প্রথম যখন ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেনতিনো পেরেজ ডেকেছেন তখনই আমার মনে হয়েছে ক্লাটিতে আবার ফিরতে হবে। আমি তাঁকে না বলিনি, আসলে ভালোবাসার টানেই পড়তে হয়েছে আমাকে।’

গত বছর মে মাসে জিদান ক্লাব ছেড়ে গিয়েছিলেন, সেই সময় মাদ্রিদে থাকলে ক্লাবেরই সমস্যা হতো বলে মনে করেন তিনি। এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আমি গিয়েছিলাম কারণ মৌসুমের শেষে ক্লাবে পরিবর্তনের প্রয়োজন ছিল। এতগুলো শিরোপা জেতার পর এটা সবার জন্যই দরকার ছিল। আমি ফিরে এসেছি কারণ সভাপতি আমাকে ডেকেছেন। আমি তাঁকে ভালোবাসি, এই ক্লাবকে ভারোবাসি, সে কারণেই আমি এখানে, আর কিছু না।’

২০২২ সালের জুন পর্যন্ত জিদানের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে রিয়ালের। জিদানের অধীনে টানা তিনটি চ্যাম্পিয়নস লিগের শিরোপা জিতে রেকর্ড গড়েছিল রিয়াল।

গত মে মাসে হঠাৎই কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন জিদান। এরপর থেকে হুলেন লোপেতেগুইকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। দলের বাজে পারফরম্যান্সের কারণে গত বছর অক্টোবরে বরখাস্ত করা হয়েছিল স্পেন জাতীয় দলের সাবেক এই কোচকে। এরপর অন্তর্বর্তীকালীন কোচের দায়িত্ব পান ক্লাবটির ‘বি’ দলের কোচ সান্তিয়াগো সোলারি। সোলারির অধীনে সময়টা ভালো কাটেনি স্পেনের সফলতম দলটির।

তবে এর আগে আড়াই বছরের দায়িত্বে রিয়ালকে দারুণ কিছু সাফল্য এনে দিয়েছিলেন জিদান। তাঁর সময়ে রিয়াল নয়টি শিরোপা জিতেছিল। সবচেয়ে বড় সাফল্য ছিল টানা তিনবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানো।

তাই ক্লাবটির ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে সময়ে আবার জিদানের শরণাপন্ন হয় রিয়াল। কোপা দেল রে, লা লিগা ও চ্যাম্পিয়নস লিগ—তিনটি আসরেই বাজে পারফরম্যান্স ছিল রিয়ালের। তাই সোলারির চাকরি হারানোর গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল।

কদিন আগে ডাচ ক্লাব আয়াক্সের কাছে চ্যাম্পিয়নস লিগে শেষ ষোলোর ফিরতি পর্বে ৪-১ গোলে হেরে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যায় রিয়াল। এর আগে বার্সেলোনার কাছে হেরেছিল। তাই এই আর্জেন্টাইন কোচের বিদায় নিশ্চিত হয়ে যায়।

দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব নিয়ে জিদান দলকে কেমন সাফল্য এনে দেন, সেটাই এখন দেখার। লা লিগায় ২৭ ম্যাচ শেষে ৫১ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে তাঁর দল।

Advertisement