Beta

গেইলের সেঞ্চুরি ছাপিয়ে ইংল্যান্ডের রেকর্ড জয়

২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:১৬

স্পোর্টস ডেস্ক

বার্বাডোজে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ দিয়ে দীর্ঘদিন পর ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফিরলেন ক্রিস গেইল। ব্যাটিং ওপেন করতে নেমে ব্যক্তিগত ৯ রানে জেসন রয়ের সহজ ক্যাচ মিসে জীবন ফিরে পেলেন। এরপর বিরক্তিকর ব্যাটিং করলেন বেশ কিছুক্ষণ। কিন্তু উইকেটে সেট হওয়ার পরপর ছোটালেন একের পর এক স্ট্রোকের ফুলকি। প্রত্যাবর্তনেই করলেন দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি। তবে ক্যারিবিয়ানরা রানের পাহাড় গড়লেও জেসন রয় ও জো রুটের জোড়া সেঞ্চুরিতে ওয়ানডেতে নিজেদের সর্বোচ্চ রান তাড়া করার রেকর্ড গড়ে দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড।

৩৬০ রান তাড়া করতে নেমে ৬ উইকেটে জিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেছে এউইন মরগ্যানের ইংল্যান্ড। নির্ধারিত ৫০ ওভারের আট বল বাকি থাকতেই ৩৬১ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় তারা। ওয়ানডে ইতিহাসে এর চেয়ে বড় লক্ষ্য তাড়া করে জয়ের কীর্তি আছে কেবল দুটি।

ব্রিজটাউনের কেনসিংটন ওভালে টস জিতে ব্যাট করতে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অভিষিক্ত ওপেনার জন ক্যাম্পবেল ২৮ বলে ৩০ রান করে আউট হন। এ সময় একেবারেই স্বভাবের বেমানান সাবধানী ব্যাটিং করছিলেন আরেক ওপেনার গেইল। তবে ওয়ানডাউনে নামা শেই হোপকে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে যোগ করেন ১৩১ রান। ৬৫ বলে ৬৪ রান করে হোপ বিদায় নেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই শিমরন হেটমায়ার ও আরেক অভিষিক্ত ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান ফিরে যান।  

এরপর ড্যারেন ব্রাভোকে সাথে নিয়ে স্বরুপে ফেরেন গেইল। প্রথম ৪৯ বলে মাত্র ২০ রান করা বাঁহাতি এই ওপেনার ২৪তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি তুলে নেন ১০০ বলে। শেষ পর্যন্ত ১২টি ছক্কা ও তিন চারে ১২৯ বলে খেলা তার ১৩৫ রানের ইনিংস থামে বেন স্টোকসের বলে বোল্ড হয়ে। ড্যারেন ব্রাভোর ৪০ ও অ্যাশলি নার্সের আট বলে অপরাজিত ২৫ রানের সৌজন্যে ৩৬০ রানের পাহাড়সম স্কোর পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ইংল্যান্ডের স্টোকস ও আদিল রশিদ নেন তিনটি করে উইকেট।   

বিশাল স্কোর তাড়া করতে নেমে ওপেনিংয়ে জনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে ১০.৫ ওভারে ৯১ রানের জুটি গড়ে ইংল্যান্ডকে দুর্দান্ত সূচনা এনে দেন জেসন রয়। ৩৪ রান করা বেয়ারস্টোকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। দ্বিতীয় উইকেটে জো রুটের সঙ্গে শতরান তোলেন রয়। ১১৪ রানের জুটি গড়ার পথে ক্যারিয়ারের সপ্তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করে ফেলেন ইংলিশ ওপেনার। মাত্র ৩০ বলে অর্ধশতক করা রয় সেঞ্চুরিতে পৌঁছান ৬৫ বলে। শেষ পর্যন্ত ৮৫ বলে ১৫ চার ও তিন ছক্কায় ১২৩ রানের মারকুটে ইনিংস খেলে আউট হন তিনি।

এরপর ৫১ বলে তিন ছক্কা ও চার চারে ৬৫ রান করে ফিরেন ইংলিশ অধিনায়ক মরগ্যান। তবে ৯৭ বলে ১০২ রানের সেঞ্চুরি ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করেন জো রুট। ওয়ানডে ক্যারিয়ারে চতুর্দশ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পথে পাঁচ হাজার রানের মাইলফলকেও পৌঁছে যান এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। তবে আক্রমণাত্মক সেঞ্চুরি ইনিংস খেলে ম্যান অব দ্য ম্যাচ হয়েছেন জেসন রয়। 

Advertisement