Beta

বাহরাইনে বিএনপির উপদ্ষ্টো আনোয়ার হোসেনের স্মরণসভা

১৯ মার্চ ২০১৭, ১৯:২১ | আপডেট: ১৯ মার্চ ২০১৭, ১৯:৩৩

বাহরাইনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা কাজী মো. আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে দোয়া ও স্মরণসভা অনুষ্ঠানে অতিথিরা। ছবি : এনটিভি

বাহরাইনে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা কাজী মো. আনোয়ার হোসেনের মৃত্যুতে দোয়া ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

গতকাল শনিবার মানামায় নবীনগর উপজেলার প্রবাসী নেতারা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। 

স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন বাহরাইনের কেন্দ্রীয় বিএনপির সভাপতি এবং বাংলাদেশ স্কুল অ্যান্ড কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হামেদ কাজী হাসান। প্রধান অতিথি ছিলেন প্রকৌশলী বদরুল আলম। সম্মানিত অতিথি ছিলেন বিএনপির প্রধান উপদেষ্টা লিন্নাস মেডিকেল হাসপাতালের উদ্যোক্তা মো. মোজাহিদুল ইসলাম।

বাহরাইনের কেন্দ্রীয় বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এস এম এইচ সোকার্নো এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মকবুল হোসেন মুকুল যৌথভাবে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির উপদেষ্টা, বাংলাদেশ স্কুল অ্যান্ড কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মো. আইনুল হক, ব্যবসায়ী মো. নাছির উদ্দিন, মো. শাহজাহান মিয়া, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মো. মাজারুল ইসলাম বাবু, কোষাধ্যক্ষ মো. মাজহারুল হক ভূঁইয়া নয়ন, সহসভাপতি কাজী কাউছার আলম, আনোয়ার ফারুক, মহিউদ্দিন আহম্মেদ, মো. ইব্রাহিম মিয়া ও সোহেল আহম্মেদ বাপ্পি। 

উপস্থিত ছিলেন বাহরাইন বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকী, প্রচার সম্পাদক হাসনাইন চৌধুরী, যুব সম্পাদক মো. কামাল উদ্দিন, যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি আলাউদ্দিন আলো, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সফি উদ্দিন, নবীনগর উপজেলা যুবদলের সভাপতি সামসুজ্জামান রাজু, প্রবাসী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বিএনপির সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এস এ সাচ্চু ভূঁইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শরিফ ভূঁইয়া, প্রবাসী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা যুবদলের সভাপতি আলাউদ্দিন আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক মো. মাসুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সাচ্চু, আরিফ রানা, আল আমিন খাঁন, আমির খন্দকার, মানামা মহানগর বিএনপির সভাপতি মো. নূরুল হক, সহসভাপতি রফিকুল হক, মো. আব্দুলাহ্, সোহরাব হোসেন, ইনাম মিয়া, এনামুল হক রতন, সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. বেলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক লিয়াকত খাঁন, যুগ্ম সম্পাদক মোয়াজ্জম, রুবেল, প্রচার সম্পাদক সোহেল, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন, প্রস্তাবিত সাংস্কৃতিক জোটের আহ্বায়ক আল আমিন খোকা, জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

স্মরণ সভায় নেতারা প্রয়াত নেতা মরহুম কাজী মো. আনোয়ার হোসেনের রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তাঁরা বলেন, কাজী আনোয়ার হোসেন ছিলেন কর্মীবান্ধব পরিচ্ছন্ন একজন রাজনীতিবিদ। তিনি নবীনগরের মাটি ও মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে ছিলেন। এ জন্যই নবীগরবাসীর হৃদয়ে আলাদা স্থান করে নিয়েছেন তিনি। তাঁর অকাল মৃত্যুতে নবীনগরবাসী এক অকৃত্রিম বন্ধুকে হারাল। আর বিএনপির হারাল দলের এক নিবেদিত প্রাণকে। তাঁর এই শূন্যতা কখনোই পূরণ হওয়ার নয়। পরে মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। 

স্মরণ সভায় বাংলাদেশ থেকে টেলিফোনে অংশ নিয়ে বক্তব্য দেন মরহুম কাজী আনোয়ার হোসেনের ছেলে কাজী নাজমূল হোসেন তাপস, নবীনগর পৌরসভার মেয়র মাঈন উদ্দিন মাঈনু, জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আনিছুর রহমান মঞ্জু।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement