Beta

নির্বাচন দিলেন, হারার আশঙ্কায় বর্জন করলেন

০৮ আগস্ট ২০১৬, ১০:৪০ | আপডেট: ০৮ আগস্ট ২০১৬, ১০:৫৩

অনলাইন ডেস্ক
সাও টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল পিন্টো দ্য কস্তা তাঁর সমর্থকদের ভোট বর্জনের আহ্বান জানিয়েছেন। ছবি : এএফপি

পশ্চিম আফ্রিকার দ্বীপরাষ্ট্র সাও টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপির প্রেসিডেন্ট ম্যানুয়েল পিন্টো দ্য কস্তা নিজে নির্বাচন আহ্বান করে ভোট নিজেই বর্জন করেছেন। আজ সোমবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ১৭ জুলাই অনুষ্ঠিত সাও টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপির জাতীয় নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোটে জালিয়াতি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে স্থানীয় সময় রোববার ভোট বর্জন  করেন পিন্টো।

পিন্টোর প্রতিপক্ষ সাবেক প্রধানমন্ত্রী এভারিস্টো কারভালহো প্রথম ধাপের ভোটে এগিয়ে রয়েছেন। এ কারণে পিন্টো ভোট বর্জন করতে পারেন বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এভারিস্টো কারভালহো প্রথম ধাপের ভোটে পেয়েছেন ৪৯ দশমিক ৮ শতাংশ এবং পিন্টো পেয়েছেন ২৪ দশমিক ৮ শতাংশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, রোববারের ভোটে পিন্টো তাঁর সমর্থকদের ভোট না দিতে আহ্বান করেন। এর পর পিন্টোর সমর্থকরা ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকেন।

১৯৭৫ সালে পর্তুগাল থেকে স্বাধীন হওয়ার পর একনায়কতন্ত্র কায়েম করে ১৫ বছর সাও টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপি শাসন করেন প্রেসিডেন্ট পিন্টো। ১৯৯০ সালে রাজনৈতিক পুনর্গঠনের মাধ্যমে দেশটিতে বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়। তবে ২০১১ সালে নির্বাচনের মাধ্যমে পিন্টো আবার ক্ষমতায় আসেন।

সাও টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপি আগে পর্তুগালের কলোনি ছিল। দুটি বড় ও অনেক ক্ষুদ্র দ্বীপ রয়েছে দেশটিতে।

Advertisement