Beta

শ্রীলঙ্কায় অস্ত্রাগারের আগুনে শতাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত, একজন নিহত

০৬ জুন ২০১৬, ১৩:০০

অনলাইন ডেস্ক
শ্রীলঙ্কার অস্ত্রাগারের আগুনে গোলাবারুদ ফুটতে থাকে। ক্ষতিগ্রস্ত হয় স্থানীয় হাসপাতালসহ শতাধিক বাসাবাড়ি। ছবি : এএফপি

শ্রীলঙ্কায় এক অস্ত্রাগারে অগ্নিকাণ্ডে হাসপাতালসহ শতাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্তত এক সেনাসদস্য আগুনে পুড়ে মারা গেছেন। আহত হয়েছেন প্রায় অর্ধশত মানুষ। গতকাল রোববার সন্ধ্যার দিকে রাজধানী কলম্বোর কাছে সালাওয়া সামরিক স্থাপনার অস্ত্রাগারে অগ্নিকাণ্ড ঘটে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, অস্ত্রাগারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সেখানে থাকা গোলাবারুদ ফুটতে থাকে। কামানের গোলা এদিক-ওদিকে ছিটকে পড়ে। হাজারো মানুষ নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যায়। তবে গোলাবারুদের আঘাতে হাসপাতালসহ শতাধিক বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

শ্রীলঙ্কার সরকার আজ সোমবার সকালে জানায়, দেশটির ইতিহাসে এটিই অস্ত্রাগারে অগ্নিকাণ্ডের সবচেয়ে বড় ঘটনা। সন্ধ্যার দিকে অস্ত্রাগারে অগ্নিকাণ্ড শুরু হয়। ১২ ঘণ্টা ধরে আগুন জ্বলেছে। আগুনের সঙ্গে রাতভর চলে গোলাবারুদের বিস্ফোরণ।

শ্রীলঙ্কার কলম্বোর চিকিৎসা কর্মকর্তা পালিথা মাহিপালা বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় আহত প্রায় ৫০ জনকে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হবে।

শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জয়ানাথ জয়াউয়িরা এএফপিকে বলেন, আগুন নেভানো সম্ভব হলেও এখনো বিস্ফোরণ ঘটছে। তাই এলাকার বাসিন্দাদের বাড়ি থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে।

স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে এএফপি জানায়, অস্ত্রাগারের নিকটবর্তী সব বাসাবাড়ি, স্কুল ও মন্দির খালি করে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার পরপরই স্থানীয় সালাওয়া হাসপাতালও বন্ধ করে দেওয়া হয়। পরে সকালে দেখা যায়, হাসপাতাল বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

শ্রীলঙ্কা সরকারের মুখপাত্র রাজিথা সেনারাথিন বলেন, আজ সকালে জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এ বিষয়ে আলোচনা করবে।

রাজিথা সেনারাথিন আরো বলেন, অস্ত্রাগারে অগ্নিকাণ্ড কোনো দুর্ঘটনা নাকি হামলা, এ নিয়ে গবেষণা চলবে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement