Beta

মালয়েশিয়ায় নিষিদ্ধ বক্স অফিসে ঝড় তোলা ‘হাসলারস’

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:২০

অনলাইন ডেস্ক

এ মাসেই মুক্তি পেয়েছে জনপ্রিয় গায়িকা-অভিনেত্রী জেনিফার লোপেজ অভিনীত ‘হাসলারস’ (অবৈধ কারবারি কিংবা যৌনকর্মী) সিনেমা। মার্কিন ও ব্রিটিশ বক্স অফিস চার্টে সিনেমাটি এ মুহূর্তে ওপরের দিকেই রয়েছে। ব্যবসায়িক সাফল্যের পাশাপাশি সিনেমার বিষয়বস্তু নিয়েও আলোচনা-সমালোচনায় মুখর নেটিজেনরা।

এ চলচ্চিত্রে ‘মাত্রাতিরিক্ত অশ্লীলতা’ দেখানো হয়েছে উল্লেখ করে সিনেমাটি প্রদর্শন নিষিদ্ধ করেছে মালয়েশিয়া। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

সিনেমাটি নিষিদ্ধ করা প্রসঙ্গে দেশটির সেন্সরবোর্ড জানিয়েছে, এ চলচ্চিত্রে নারীদের উন্মুক্ত বক্ষ, যৌন উদ্দীপক নাচ এবং মাদক সংশ্লিষ্ট দৃশ্য রয়েছে। যে কারণে সিনেমাটি জনসাধারণের দেখার উপযোগী নয়।

মালয়েশিয়াতে চলচ্চিত্রটির পরিবেশক প্রতিষ্ঠান স্কয়ার বক্স পিকচার্স ‘হাসলারস’ নিষিদ্ধ হওয়ার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিশ্চিত করেছে।

কয়েকজন যৌনকর্মী তাঁদের ধনী খদ্দেরকে লুট করার পরিকল্পনা করে—এমন গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছে ‘হাসলারস’ সিনেমাটি।

২০১৫ সালে নিউইয়র্ক ম্যাগাজিনে প্রকাশিত একটি ভাইরাল নিবন্ধ থেকে অনুপ্রাণিত এবং একটি সত্য ঘটনা অবলম্বনে নির্মিত এ চলচ্চিত্রে ‘জে লো’ ছাড়াও অভিনয় করেছেন কন্সট্যান্স উ ও জুলিয়া স্টাইলস। এ ছাড়া সিনেমায় অভিনয় করেছেন লিজ্জো ও কার্ডি বি।

‘হাসলারস’ সিনেমায় ‘যৌনতাসংশ্লিষ্ট নগ্নতা, যৌনকর্মের সুস্পষ্ট ইঙ্গিত, ভাষা ও মাদকের ব্যবহার’ থাকায় ব্রিটিশ বোর্ড অব ফিল্ম ক্লাসিফিকেশন একে ১৫ বছরের কম বয়সীদের জন্য অনুপযোগী হিসেবে ছাড়পত্র দিয়েছে। 

এর আগে চলতি বছর সমকামীতাসংশ্লিষ্ট দৃশ্য থাকার কারণে বিখ্যাত গায়ক, গীতিকার, সুরকার ও পিয়ানো বাদক এলটন জনের জীবনীভিত্তিক চলচ্চিত্র ‘রকেটম্যান’-এর প্রদর্শনী নিষিদ্ধ করেছিল মালয়েশিয়া, মিসর, সামোয়া ও কুক দ্বীপপুঞ্জ। এ ছাড়া ‘রকেটম্যান’ সিনেমা থেকে সমকামিতার দৃশ্যগুলো ছেঁটে ফেলার পরই তা সিনেমা হলে দেখানোর অনুমতি দেয় রাশিয়া।

Advertisement