Beta

বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে নতুন করে আলোচনায় বসার অঙ্গীকার হংকং প্রশাসকের

২০ আগস্ট ২০১৯, ০৯:৪০ | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৯, ০৯:৪২

অনলাইন ডেস্ক

দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে চলমান সরকারবিরোধী আন্দোলন-বিক্ষোভের মুখে সরকারের সমালোচকদের সঙ্গে অতিদ্রুত সংলাপ ও আলোচনায় বসার অঙ্গীকার করলেন হংকংয়ের প্রশাসনিক নেতা ক্যারি ল্যাম।

হংকংয়ের নির্বাহী কাউন্সিলের এক বৈঠকের প্রাক্কালে আজ মঙ্গলবার এক ব্রিফিংয়ে ল্যাম বলেন, ‘হংকংয়ের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে বোঝাপড়া বাড়াতে এবং সামনে এগোনোর পথ খুঁজে পাওয়ার লক্ষ্যেই এই সংলাপ মঞ্চ। আমরা আশা করি, এই মঞ্চ হবে উন্মুক্ত ও সরাসরি। এখানে সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষ এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের ব্যক্তিবর্গ থাকবেন।’

চলতি মাসের শুরুতে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ শুরু হলে ল্যাম বলেছিলেন, সংঘাত শেষ হলেই প্রশাসন ও আন্দোলনকারীদের মধ্যে আবার আলোচনা শুরু হতে পারে। দুদিন ধরে হংকং বিক্ষোভ নতুন রূপ নিয়েছে। শান্তিপূর্ণভাবে হংকং শহরের প্রাণকেন্দ্রে গণঅবস্থানের পন্থা অবলম্বন করেছেন আন্দোলনকারীরা। এমন অবস্থায় একটি সংলাপ মঞ্চের কথা জানালেন ক্যারি ল্যাম। ব্লুমবার্গের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

একটি বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিল নিয়ে দুমাসের বেশি সময় ধরে আন্দোলন করছেন সরকারবিরোধীরা। সরকার ও বিক্ষোভকারী উভয় পক্ষই নিজেদের অবস্থানে অনড় থাকায় হংকংয়ে চলমান উত্তপ্ত পরিস্থিতি ঠাণ্ডা হওয়ার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। আন্দোলনকারীদের প্রচণ্ড বিক্ষোভের মুখে বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিলটি হংকং প্রশাসন স্থগিত করলেও আন্দোলনকারীদের দাবি, বিলটি স্থায়ীভাবে বাতিল করতে হবে এবং হংকংয়ের নেতা ক্যারি ল্যামকে পদত্যাগ করতে হবে। এর পাশাপাশি দাবিতে যুক্ত হয়েছে আন্দোলনকারীদের ওপর কথিত পুলিশের হামলার নিরপেক্ষ তদন্ত।

এর আগেও কয়েকজন ছাত্রনেতার সঙ্গে আলোচনায় বসার চেষ্টা করেছিলেন ক্যারি ল্যাম। কিন্তু বৈঠকে বসার ক্ষেত্রে ল্যামের দেওয়া শর্ত ছাত্রনেতারা নাকচ করে দিলে আর আলোচনা হয়নি।

ক্যারি ল্যাম আজ মঙ্গলবার বলেন, ‘আমরা খুবই আন্তরিক ও বিনীতভাবে সংলাপ-আলোচনা করতে চাই। মতদ্বৈধতা দূর করার চেষ্টা করাই আমাদের লক্ষ্য।’

Advertisement