Beta

মালদ্বীপে মাসব্যাপী জরুরি অবস্থা জারি

০৪ নভেম্বর ২০১৫, ১৮:৫৫ | আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৫, ১৯:২১

অনলাইন ডেস্ক
মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে আজ বুধবার জরুরি অবস্থা চলাকালে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের সামনে পাহারা দেন দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। ছবি : এপি

বিরোধী দলের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে মালদ্বীপের পর্যটনের আকর্ষণীয় সব স্থানে মাসব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। দেশটির প্রেসিডেন্ট জারীকৃত ঘোষণায় জনগণের মৌলিক অধিকার রহিত করার পাশাপাশি শান্তি প্রতিষ্ঠায় নিরাপত্তা বাহিনীকে পূর্ণ ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় সময় আজ বুধবার সকাল ৭টা থেকে মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা শুরু হয়। এ অবস্থায় নিরাপত্তা বাহিনী সন্দেহভাজন যে কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারবে। চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে প্রধান বিরোধী দল মালদিভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমনডিপি) দেশজুড়ে প্রতিবাদ শোভাযাত্রার পরিকল্পনা করছে। মূলত এই আন্দোলনকে রুখতেই সরকার এমন পদক্ষেপ নিয়েছে।

চলতি বছরের শুরুতে এমডিপি নেতা ও মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদ আইনে সাজা হয়। বর্তমানে তিনি কারা ভোগ করছেন। সরকারের এমন অবস্থানের প্রতিবাদেই দলটি প্রতিবাদ শোভাযাত্রার পরিকল্পনা নিয়েছে। 

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্টের এক বিবৃতিতে বলা হয়, কিছু গোষ্ঠী আন্দোলনের নামে অস্ত্র ও বিস্ফোরক ব্যবহারের পরিকল্পনা করেছে। এই পরিপ্রেক্ষিতে মাসব্যাপী জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিনের মুখপাত্র মুয়াজ আলী এক টুইটার বার্তায় বলেন, বিভিন্ন দেশের পর্যটক ও নাগরিকদের নিরাপত্তার স্বার্থেই প্রেসিডেন্ট এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

কয়েক বছর ধরেই মালদ্বীপের রাজনৈতিক অবস্থা বেশ ঘোলাটে। চলতি বছর সেখানে কিছুটা সুস্থিতি এলেও নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

২০১৩ সালের প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে মালদ্বীপের ক্ষমতায় আসেন প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন। তবে ওই নির্বাচনে মোহাম্মদ নাশিদের সঙ্গে তাঁর হাড্ডাহাডি লড়াই হয়। নির্বাচন নিয়েও অনেকের মনে প্রশ্ন দেখা দেয়। আর আবদুল্লাহ ইয়ামিন ক্ষমতায় আসার পরই নাশিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ করা হয়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement