Beta

শিশুকে অপহরণের পর গণধর্ষণ করে শিরশ্ছেদ, ভিডিও ভাইরাল

০১ আগস্ট ২০১৯, ১৬:৫৪

অনলাইন ডেস্ক

তিন বছরের শিশুকে গণধর্ষণের পর তার মাথা কেটে ফেলার অভিযোগ উঠেছে সন্দেহভাজন দুই ধর্ষকের বিরুদ্ধে। এমন নৃশংস ঘটনায় হতভম্ব ভারতের ঝাড়খন্ড রাজ্যের জামশেদপুরের মানুষ।

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এক প্রতিবেদনে জানায়, জামশেদপুরের একটি রেলওয়ে প্ল্যাটফর্ম থেকে শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় দুজন। এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এদের মধ্যে দুজন অভিযুক্তই ধর্ষক বলে ধারণা করছে পুলিশ।

জানা যায়, তাদের মধ্যে একজন ২০১৫ সালে একটি শিশুকে অপহরণ করে খুনের চেষ্টায় সাজাপ্রাপ্ত। অল্প কিছুদিন আগে সে জেল থাকা ছাড়া পেয়েছে।

খবরে বলা হয়, গত সপ্তাহ থেকেই নিখোঁজ ছিল শিশুটি। সিসিটিভি ফুটেজে ধরা পড়েছে, কীভাবে রেলওয়ে প্ল্যাটফর্ম থেকে ঘুমন্ত শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। শিশুটি তার মায়ের কোলে ঘুমাচ্ছিল। তখনই শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় তারা। পরে শিশুটির মা সকালে মেয়েকে না পেয়ে থানায় জানায়।

ফুটেজ দেখে পুলিশ অপরাধীদের শনাক্ত করার চেষ্টা করে। মঙ্গলবার রাতে শিশুটির মরদেহ পাওয়া যায় একটি প্লাস্টিকের ব্যাগে। ওই স্টেশন থেকে চার কিলোমিটার দূরে একটি ঝোপের মধ্যে।

এদিকে পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত একজন শিশুটিকে ধর্ষণ করার পরে হত্যা করার কথা স্বীকার করেছে। পুলিশ শিশুটির ছিন্ন মাথাটি খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। সেটি এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে রেলওয়ে পুলিশ।

গত শুক্রবার এই নৃশংস অপরাধটি ঘটানো হয় বলে মনে করা হচ্ছে। পুলিশ জানিয়েছে, শিশুটির শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

Advertisement