Beta

নিরাপত্তা বাহিনীর নির্যাতন বন্ধে নাইজেরিয়ার প্রতি অ্যামনেস্টির আহ্বান

২৬ জুন ২০১৯, ১৭:০৭

অনলাইন ডেস্ক

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বুধবার বলেছে, নাইজেরিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা বেসামরিক নাগরিক ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়ন চালাচ্ছে। এ ধরনের নির্যাতন রোধে নতুন আইন পাস করা সত্ত্বেও তারা নির্যাতন অব্যাহত রাখায় সংস্থাটি নিরাপত্তা বাহিনীর দমনপীড়ন বন্ধে দেশটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

এএফপির খবরে বলা হয়, নির্যাতনের শিকার হওয়া মানুষের সমর্থনে আন্তর্জাতিক দিবস পালন উপলক্ষে দেওয়া এক বিবৃতিতে অ্যামনেস্টি জানায়, তারা সামরিক বাহিনীর হাতে এবং পুলিশ হেফাজতে থাকা মানুষকে নির্যাতন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিদিন খবর পাচ্ছে।

তারা জানায়, অন্যদিকে নাইজেরিয়ার বিচার ব্যবস্থা নির্যাতন প্রতিরোধে বা দোষীদের শাস্তি দিতে ব্যর্থ হওয়ায় নির্যাতনের শিকার হওয়া ব্যক্তিরা ন্যায়বিচার পাচ্ছে না।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল নাইজেরিয়ার পরিচালক ওসাই ওজিঘো বলেন, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে নাইজেরিয়ার পার্লামেন্ট নির্যাতনবিরোধী একটি আইন পাস করলেও দেশটিতে এখনো বেসামরিক নাগরিকদের ওপর ব্যাপক দমনপীড়ন চালানো হচ্ছে।

নাইজেরিয়ার মানবাধিকার লঙ্ঘনে ব্যাপকভাবে অভিযুক্ত স্পেশাল অ্যান্টি-রোবারি স্কোয়াডের (এসএআরএস) সংস্কারের দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভের পর প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি এ ব্যাপারে একটি প্রেসিডেন্সিয়াল প্যানেল গঠন করেন।

মানবাধিকারবিষয়ক বিভিন্ন সংগঠন এবং অ্যামনেস্টি বেসামরিক নাগরিক ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের নির্যাতনে পুলিশ ও এসএআরএসকে দায়ী করে।

Advertisement