Beta

যে হ্রদে প্রাণী পাথরে পরিণত হয়!

২৫ অক্টোবর ২০১৫, ১৯:৫৮ | আপডেট: ২৫ অক্টোবর ২০১৫, ২০:২৪

অনলাইন ডেস্ক

বিরাট একটি লেক (হ্রদ)। যার উপরিভাগে সৃষ্টি হয় যে কোনো কিছুর হুবহু প্রতিবিম্ব। আর নিজের চমৎকার প্রতিবিম্ব দেখে সেই পানিতে ডুব দেয় নানা জাতের পাখি, বিভিন্ন প্রাণী। আর ডুব দিলেই প্রাণীগুলো পরিণত হয় পাথরে! যেন একেকটি ভাস্কর্য!

আশ্চর্য এই জলাধারের অবস্থান তানজানিয়ার উত্তরাংশে গ্রেট রিফ ভ্যালিতে। লেকটির নাম নাটরন লেক। এক কথায় এই লেককে বলা যেতে পারে ভয়াবহ জলাধার।

শুধু ক্ষারীয় প্রজাতির বিশেষ ধরনের তেলাপিয়া মাছ আর লবণে আসক্তি আছে এমন অণুজীব ছাড়া কোনো প্রাণীর পক্ষে এই লেকে টিকে থাকা সম্ভব নয়। লেকটির তাপমাত্রা কখনো কখনো ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াসেও পৌঁছে যায়। আর এর ক্ষারের মাত্রা বা পিএইচ লেভেল থাকে ৯ থেকে ১০.৫-এর মধ্যে।

সোডিয়াম কার্বনেটের মধ্যে সামান্য বেকিং সোডা বা সোডিয়াম বাই কার্বনেট দিলে যে প্রাকৃতিক যৌগ তৈরি হয়, তা থেকেই এসেছে লেকের নামটি। এই লেকের পানিতে ডুব দিলেই যে কোনো প্রাণী মারা যায় এবং চুনে জমে শক্ত হয়ে যায়। এ ছাড়া পানিতে উপস্থিত অণুজীবগুলো লাল রঞ্জক পদার্থ তৈরি করায় পানির রং লাল দেখায়।

বিশ্বখ্যাত আলোকচিত্রী নিক ব্র্যান্ড একদিন এই লেকে নিখুঁতভাবে সংরক্ষিত পাখি এবং বাদুড় আবিষ্কার করলেন। তিনি সেগুলোর ছবি তুললেন। তবে কীভাবে এই পাখিগুলো মারা গেছে সে সম্পর্কে কেউ কিছু জানে না বলেও জানান নিক ব্র্যান্ড। তিনি বলেন, তবে এটা হতে পারে যে, লেকের পানিতে নিজেদের স্বচ্ছ ছবি দেখে সেখানে ডুব দিতে চায় এসব প্রাণী। আর তারপরই ঘটে এই ঘটনা।

অবশ্য ছবিতে চুন হয়ে যাওয়া প্রাণীগুলোকে যেভাবে দেখেছেন, ওগুলো সেভাবে ছিল না। আলোকচিত্রী নিক ব্র্যান্ড ছবি তোলার জন্য এভাবে সাজিয়েছিলেন মৃত প্রাণীগুলোকে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement