Beta

শ্রীলঙ্কায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ জাহরান হাশিমের বাবা ও দুই ভাই নিহত

২৮ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৫০

রয়টার্স
গত শুক্রবার রাতে শ্রীলঙ্কার পূর্ব উপকূলীয় এলাকার কয়েকটি বাড়িতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ১৫ জন নিহত হয়। ছবি : রয়টার্স

শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডেতে সিরিজ বোমা হামলার সন্দেহভাজন মূলহোতা জাহরান হাশিমের বাবা ও দুই ভাই গত শুক্রবার রাতের ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহতদের মধ্যে রয়েছেন বলে জানা গেছে। এদিন দেশটির পূর্ব উপকূলীয় এলাকার কয়েকটি বাড়ি থেকে ছয় শিশুসহ ১৫ জনের মরদেহ উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ওই ব্যক্তিরা নিহত হন বলে সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র জানান। ভিডিও দেখিয়ে জাহরান হাশিমের বাবা মোহাম্মদ হাশিম, দুই ভাই জইনি হাশিম ও রিলওয়ান হাশিমের মরদেহ চিহ্নিত করেন জাহরানের শ্যালক নিয়াজ শরিফ।

সামাজিক মাধ্যমে তারিখবিহীন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে যাতে শহীদী মৃত্যু নিয়ে আলোচনা এবং অবিশ্বাসীদের হত্যার আহ্বান জানানো হচ্ছে। শুক্রবারের নিহতদের মধ্যে ওই ভিডিওতে কথা বলা তিনজনের মরদেহ রয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ। ওই তিনজনের একজন হলেন জাহরানের ভাই রিলওয়ান হাশিম। রিলওয়ান সেখানে জিহাদের ডাক দিচ্ছেন।

এর আগে শ্রীলঙ্কার সরকার জানায়, জাহরান হাশিম গত রোববার বোমা হামলার সময় নিহত হন। কলম্বোর সাংরি-লা হোটেলে তিনি হামলা চালিয়েছিলেন বলে জানানো হয়। জাহরান হাশিম অনেক আগে থেকেই ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়িয়ে বক্তৃতা দেওয়ার জন্য বিতর্কিত ছিলেন। এমনকি তাঁর ব্যাপারে এর আগে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সতর্কও করা হয়েছিল।

গত ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডেতে শ্রীলঙ্কায় গির্জা ও হোটেলে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। ওই হামলায় সর্বশেষ নিহতের সংখ্যা ২৫৩ বলা হয়েছে। এদের মধ্যে বিদেশিও আছেন। এদিকে নয়জন আত্মঘাতী বোমারু এই হামলা চালিয়েছে বলে জানায় শ্রীলঙ্কার সরকার।

Advertisement