Beta

বয়স ১২ হলে যে গ্রামের মেয়েরা ছেলে হয়ে যায়

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ২২:১৭

অনলাইন ডেস্ক
ডোমিনিকান রিপাবলিকের দুই শিশু ক্যাথরিন এবং ক্লারা। ১৩ বছরের ক্যাথরিন এক বছর আগেও মেয়ে শিশু হিসেবে পরিচিত ছিল। এক বছরের ব্যবধানে সে ছেলেতে রূপান্তরিত হয়েছে। ছবি : বিবিসি অনলাইন

উত্তর আমেরিকার একটি দ্বীপদেশ ডোমিনিকান প্রজাতন্ত্র (রিপাবলিক)। দেশটির একটি প্রত্যন্ত গ্রাম সালিনাস। বড় অদ্ভুত এই গ্রাম। কারণ বয়ঃসন্ধিকাল এলেই গ্রামটির মেয়েরা ছেলেতে পরিণত হয়ে যায়!

বিবিসির প্রতিবেদক সারাহ নাপটন সম্প্রতি ‘কাউন্টডাউন টু লাইফ’ অনুষ্ঠান ধারণ করতে  দেশটিতে গিয়ে অদ্ভুত এই সমস্যার কথা জানতে পারেন।  তিনি এই সমস্যায় ভোগা বেশ কিছু মানুষের বক্তব্য ধারণ করে আনেন। পরে জানা যায়, এটি খুবই দুর্লভ একটি জীনগত অসুখ।

নিউইয়র্কের জীনগত রোগের গবেষক গ্যারি ফ্রু জানান, বংশগতির একটি দুর্লভ জীনের কারণে মানুষ ‘গুয়ভেন্ডোকেস’ নামের এই জীনগত অসুখে আক্রান্ত হয়। এই অসুখে আক্রান্তরা পুরুষের অন্তর্গত সব বৈশিষ্ট্য নিয়ে জন্মায়। কিন্তু জননাঙ্গের আকৃতিগত কারণে তা প্রকাশ পায় না। তাই শিশুটি ছেলে নাকি মেয়ে তা জানতে অপেক্ষা করতে হয় বয়ঃসন্ধিকাল পর্যন্ত।

প্রতিবেদক সারাহ নাপটন সালিনাসে জনি নামের ১১ বছর বয়সী এক শিশুর এই জীনগত সমস্যার চিত্র ধারণ করেন। সেখানে জানা যায়, শারীরিক বৈশিষ্ট্যগতভাবে সে ছেলে। কিন্তু কোনো এক কারণে জনির পুরুষাঙ্গ গঠিত হয়নি। বরং তার জননাঙ্গ মেয়েদের মতো।

জনির বাবা-মা জানান এই গ্রামে জনির মতো আরো অনেক ছোট ছোট ছেলেদের ঠিক একই অবস্থা। ১২ বছরের আগে তারা সবাই মেয়ে থাকে। আবার ১২ তে পা দিলেই তাদের পুরুষাঙ্গ গঠিত হয়ে ওরা ছেলেতে পরিণত হয়।

স্থানীয়রা জানালেন, ছোটবেলায় এই গ্রামের সবাই ফ্রক, মহিলাদের পোশাক পরেই ঘোরে। বারোতে পা দিতেই বোঝা যায় ওদের আসল রূপ।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement