Beta

৩০ নারীর মধ্যে এইচআইভি ছড়ানোয় ইতালীয়র কারাদণ্ড

২৮ অক্টোবর ২০১৭, ১১:০৪

অনলাইন ডেস্ক
উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ৩০ নারীকে এইচআইভি আক্রান্ত করার দায়ে ভ্যালেন্তিনো তাল্লুতো নামের এক ইতালীয় নাগরিককে ২৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত। ছবি : এএফপি

ইতালিতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ৩০ নারীর মধ্যে এইচআইভি ভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ায় এক হিসাবরক্ষককে ২৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

স্থানীয় সময় শুক্রবার ভুক্তভোগীদের উপস্থিতিতে এই দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

বিবিসির খবরে বলা হয়, ২০০৬ সালে এইচআইভি পজিটিভ হওয়ার পরও অন্তত ৫৩ নারীর সঙ্গে অনিরাপদ যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছেন ভ্যালেন্তিনো তাল্লুতো নামের ওই ব্যক্তি। ওই নারীদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠের বয়স ছিল ১৪ বছর।

৩৩ বছর বয়সী ওই যুব্ক ‘হার্টি স্টাইল’ ছদ্মনাম ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যম ও ডেটিং সাইট ব্যবহার করে নারীদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলতেন।

শুক্রবার রায়ের সময় তাল্লুতোর পক্ষের আইনজীবীরা আদালতকে বলেন, তাঁদের মক্কেলের আচরণ ছিল হঠকারী। তবে তা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয়।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, শারীরিক সম্পর্কের সময় কিছু নারী তাল্লুতোকে কনডম ব্যবহার করতে বলেছিলেন। কিন্তু এই হিসাবরক্ষক তা না শুনে উল্টো নারীদের জানাতেন, তাঁর অ্যালার্জি আছে অথবা তিনি সম্প্রতি এইচআইভি পরীক্ষা করিয়েছেন। তাই কনডম পরা যাবে না।

শারীরিক সম্পর্ক করে সংক্রমিত হওয়ার পর কিছু নারী অভিযোগ করতে গেলে তাল্লুতো এইচআইভি আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন।

শুধু নারীদেরই নয়, তাল্লুতোর মাধ্যমে পরোক্ষভাবে এইচআইভিতে আক্রান্ত হয়েছে তিন পুরুষ ও এক শিশু। এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে গত মাসে আইনজীবী এলেনা তেরি আদালতকে বলেন, ‘তাঁর কর্মকাণ্ডের উদ্দেশ্য ছিল মৃত্যু ডেকে আনা।’

তাল্লুতোর মা এইচআইভি আক্রান্ত ও মাদকাসক্ত ছিলেন। ছেলের চার বছর বয়সে তাঁর মৃত্যু হয়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement