Beta

শাদে সেনা অভিযানে শতাধিক জঙ্গি নিহত

৩১ জুলাই ২০১৫, ১৯:৪৭

অনলাইন ডেস্ক
সামরিক যানে করে অভিযানে যাচ্ছে শাদ সেনাবাহিনীর সদস্যরা। ছবি : রয়টার্স

আফ্রিকার দেশ শাদের সীমানায় থাকা লেক শাদ দ্বীপপুঞ্জে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন বোকো হারামের বিরুদ্ধে শাদ সেনাবাহিনীর অভিযানে একশর বেশি জঙ্গি নিহত হয়েছে। শাদ সেনাবাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল আজিম বার্মেন্দোয় আগুনার বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স আজ শুক্রবার এ কথা জানায়।
 
মুখপাত্র জানান, এক সপ্তাহ আগে বোকো হারামের বিরুদ্ধে এ অভিযান শুরু হয়। সপ্তাহব্যাপী ওই সামরিক অভিযানে ১১৭ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া এ অভিযান চলাকালে শাদের দুই সৈন্য নিহত ও অপর দুজন আহত হয়।

কর্নেল আজিম বার্মেন্দোয় আগুনা আরো জানান, সেখানে সামরিক অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে নিরপেক্ষ কোনো সূত্রের মাধ্যমে তাৎক্ষণিকভাবে নিহতের এ সংখ্যা নিশ্চিত করা যায়নি।

উত্তর-পূর্ব আফ্রিকায় অবস্থিত লেক শাদকে বোকো হারামের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। লেক শাদে নাইজারের বেশ কয়েকটি দ্বীপপুঞ্জ রয়েছে। নাইজেরিয়া, নাইজার, ক্যামেরুন ও শাদের মধ্যে লেক শাদ অবস্থিত।

এর আগে বোকো হারামের অব্যাহত হামলা এড়াতে লেক শাদে বসবাসরত বাসিন্দাদের ওই এলাকা ত্যাগের আহ্বান জানিয়েছে নাইজার কর্তৃপক্ষ। গত সপ্তাহে জঙ্গিদের হামলায় কমপক্ষে ৭৪ জন নিহত হওয়ার পর এ আহ্বান জানানো হয়েছে।

এদিকে, বোকো হারামের বিরুদ্ধে নতুন করে কঠোর সামরিক অভিযান চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ বুহারি। বোকো হারাম নিজেদের ধর্মীয় সংগঠন বলে যে দাবি করেছে, তা কঠোর ভাষায় প্রত্যাখ্যান করে তিনি বলেন, ‘বেসামরিক নাগরিকদের ওপর এই জিহাদি গোষ্ঠীর হামলা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।’

বুহারি বলেন, ‘বোকো হারাম কোনো ধর্মীয় গোষ্ঠী নয়। তারা সন্ত্রাসী এবং তাদের সঙ্গে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যে আচরণ করা হয়, তা-ই করা হবে। লোকভর্তি করার সুযোগ না দিলেই এই উগ্র মৌলবাদী দলটি পরাজিত হবে। কোনো ধর্মই বাজারে বা ধর্মীয় স্থানে হামলা চালিয়ে নারী ও শিশুদের হত্যার অনুমতি দেয়নি।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement