Beta

ঝড়ে উড়ে গেল প্রধানমন্ত্রীর বাড়ির ছাদ

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৯:৫৬ | আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০:০০

অনলাইন ডেস্ক
হারিকেন মারিয়ার আঘাতে সোমবার রাতে লণ্ডভণ্ড হয় ডোমিনিকা দ্বীপ। ছবি : রয়টার্স

হারিকেন (ঘূর্ণিঝড়) ইরমার ধাক্কার আঘাত সামলাতে না সামলাতেই ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের ওপর আছড়ে পড়েছে আরো একটি হারিকেন। মারিয়া নামে ক্যাটাগরি ৫ মাত্রার নতুন এই হারিকেনটি লণ্ডভণ্ড করেছে ডোমিনিকা দ্বীপ। ঝড়ের তাণ্ডবের হাত থেকে রেহাই পাননি দেশটির প্রধানমন্ত্রীও। ফেসবুকে তিনি জানান, সোমবারের ঝড়ে উড়ে গেছে তাঁর বাড়ির ছাদ। এতে নাকি তিনি বেশ বিপদে পড়েছেন।

স্থানীয় সময় সোমবার ঝড়ের সময় প্রধানমন্ত্রী রুসভেল্ট স্কেরিট ফেসবুকে লেখেন, ‘আজ রাতে ডোমিনিকার কারো ঘুম হবে না। আমার বিশ্বাস, আমার বাড়িরও কিছু ক্ষতি হয়েছে।’

পরে আরেকটি পোস্টে তিনি লিখেন, ‘আমার বাড়ির ছাদ উড়ে গেছে। আমি এখন হারিকেনের করুণায় বেঁচে আছি। বাড়ির ভেতর পানি থৈথৈ করছে।’

প্রায় এক ঘণ্টা পর স্কেরিট নিশ্চিত করেন, তাঁকে উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারের পর ফেসবুকে তিনি লিখেন, ‘আমরা যা হারিয়েছি, তার ক্ষতি অর্থ দিয়ে পূরণ করা সম্ভব নয়। আমার ভয় হচ্ছে, সকালে উঠে বৃষ্টির ফলে ভূমিধসে হতাহতের খবর পাব।’

সোমবার রাত সোয়া ৯টার দিকে হারিকেনটি ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে আঘাত হানে। এটি প্রথমে ডোমিনিকা দ্বীপের ওপর দিয়ে বয়ে যায়। সে সময় ঝড়ের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ২৬০ কিলোমিটার। হারিকেনটি পুয়ের্তো রিকোর দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া দপ্তর।

এদিকে ফ্রেঞ্চ আইল্যান্ড, গুয়াদেলোপ, পুয়ের্তো রিকো, ইউএস ভার্জিন আইল্যান্ডস ও ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ডসসহ বিভিন্ন দ্বীপে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এর মধ্যে ফ্রেঞ্চ আইল্যান্ড, পুয়ের্তো রিকো ও গুয়াদেলোপের বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সোমবার ইউএস ভার্জিন আইল্যান্ডসে সতর্কতা জারি করেছেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement