Beta

বিক্রি হয়ে যাচ্ছে ফিন্যান্সিয়াল টাইমস

২৪ জুলাই ২০১৫, ১০:০৭ | আপডেট: ২৪ জুলাই ২০১৫, ১০:৪৬

অনলাইন ডেস্ক

নিজেদের মালিকানাধীন ফিন্যান্সিয়াল টাইমস গ্রুপ জাপানের নিক্কেই-এর কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে বলে জানিয়েছে প্রকাশনা গ্রুপ পিয়ারসন। তবে ইকোনমিস্টের ৫০ শতাংশ শেয়ার বা ফিন্যান্সিয়াল টাইমসের লন্ডন কার্যালয় বিক্রির আওতায় পড়বে না। এক বিবৃতিতে ফিন্যান্সিয়াল টাইমস (এফটি) গ্রুপ নিশ্চিত করেছে, এর দাম পড়েছে ৮৪৪ মিলিয়ন পাউন্ড (এক হাজার ৩১০ মিলিয়ন ডলার)।

পিয়ারসনের প্রধান নির্বাহী জন ফ্যালন বলেন, ‘৬০ বছর ধরে পিয়ারসন এফটির গর্বিত স্বত্বাধিকারী। তবে আমরা মিডিয়ায় একটি ক্ষতির মুহূর্তে এসে পড়েছি।’  তিনি বলেন, ‘এই নতুন পরিবেশে, এফটির সাংবাদিকতা ও বাণিজ্যিক সাফল্য নিশ্চিত করতে সবচেয়ে ভালো হলো এটাকে একটি বৈশ্বিক, ডিজিটাল কোম্পানি হিসেবে গড়ে তোলা।’

ফিন্যান্সিয়াল টাইমস গ্রুপের প্রকাশনার মধ্যে ‘পিংক’, ‘আন’ রয়েছে। এ ছাড়া ব্যবসায় প্রকাশনার মধ্যে আছে ইনভেস্টরস ক্রনিকল, দ্য ব্যাংকার, ম্যানডেটওয়্যার, মানি-মিডিয়া ও মডেলি গ্লোবাল অ্যাডভাইজরস।

বই প্রকাশনা সংস্থা পেঙ্গুইন র‍্যান্ডম হাউসের একটি বৃহৎ অংশের মালিক পিয়ারসন। দীর্ঘদিন ধরেই তারা সংবাদপত্রটি বিক্রি করে দেওয়ার চিন্তা করছিল।

গত বছর রাজস্ব আয়ের ৯০ শতাংশ এসেছিল বই প্রকাশনা ব্যবসা থেকে। জানা গেছে, মোট মুনাফার ১২ দশমিক ৫ শতাংশ কমে গেছে।

ফিন্যান্সিয়াল ছাপা সংস্করণ চালু হয় ১৮৮৮ সালে। বর্তমানে এর প্রিন্স ও ডিজিটাল প্রচারসংখ্যা ছিল সাত লাখ ২০ হাজার। তবে ৭০ শতাংশ পাঠকই আসত ওয়েবসাইট থেকে। ২০১২ সালে সংবাদপত্রটির ডিজিটাল প্রচার প্রিন্স প্রচারসংখ্যাকে ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ট্যাবলেট ও স্মার্টফোন থেকেই অর্ধেক পাঠক পাওয়া যেত।

বিবিসি জানিয়েছে, এশিয়ার বৃহত্তম মিডিয়া গ্রুপ নিক্কেই। নিক্কেই নামে এর একটি সংবাদপত্র রয়েছে। এ ছাড়া বই, সাময়িকী, ডিজিটাল সংবাদমাধ্যম, ব্রডকাস্টিং ইত্যাদি খাতে ব্যবসা রয়েছে।

নিক্কেই-এর চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী সুনিও কিতা বলেন, ‘ফিন্যান্সিয়াল টাইমসের সঙ্গে থাকতে পেরে আমি গর্বিত। আমাদের লক্ষ্য হলো পক্ষপাতহীন ও স্বচ্ছতার সঙ্গে অর্থনৈতিক ও অন্যান্য বিষয়ে উচ্চ মানের প্রতিবেদন প্রকাশ করা।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement