Beta

‘ভুল করে’ বিমান হামলা, ৫২ শরণার্থী নিহত

১৮ জানুয়ারি ২০১৭, ১০:৪৬

বিবিসি
নাইজেরিয়ার বর্নো প্রদেশের একটি শরণার্থী শিবিরে ভুলক্রমে হামলা চালিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি যুদ্ধবিমান। এতে নিহত হয়েছেন কমপক্ষে ৫২ জন। আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। ছবি : এএফপি

নাইজেরিয়ার একটি শরণার্থী শিবিরে ‘ভুল করে’ চালানো বিমান হামলায় অন্তত ৫২ জন নিহত হয়েছেন। দেশটির বর্নো প্রদেশের ওই শরণার্থী শিবিরে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে সেনাবাহিনীর একটি যুদ্ধবিমান হামলা চালায়।

বর্নো প্রদেশে অবস্থিত নাইজেরিয়া-ক্যামেরুন সীমান্তের কাছে ওই বিমান হামলার ঘটনা ঘটে।

এতে কমপক্ষে ৫২ শরণার্থী নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে দেশটির ত্রাণ ও উদ্ধার বিভাগ।

হামলাস্থলের আশপাশে দেশটির জঙ্গিগোষ্ঠী বোকো হারামের সঙ্গে নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীর যুদ্ধ চলছিল। আর বোকো হারামের বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে হামলার পরিকল্পনা ছিল ওই সেনা বিমানটির।

নাইজেরিয়ার সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ভুলক্রমে হামলার বিষয়টি স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে।

হামলার বিষয়ে জেনারেল রাবে আবুবকর নামের নাইজেরিয়া সেনাবাহিনীর একজন মুখপাত্র জানান, ভুলক্রমে ঘটা ওই হামলায় দেশটির সেনাবাহিনী গভীরভাবে শোকাহত।

আবুবকর আরো বলেন, ‘এমন ধরনের সেনা অভিযানে মাঝেমধ্যে এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকে।’

হিউগ রবার্ট নামে এমএসএফের (বেসরকারি সাহায্যকারী সংস্থা) এক মুখপাত্র বলেন, ‘হামলায় অনেক বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন।’

‘আমাদের দল ঘটনাস্থলে ছিল এবং মৃতদেহ গুনে দেখেছিল। বিমান থেকে নিক্ষেপ করা দুটি বোমায় কমপক্ষে ২০০ জন নিহত হয়েছে।’

আলেকসান্দ্রা মেতিজেভিচ নামের রেড ক্রসের এক মুখপাত্র জানান, তাঁদের কয়েকজন কর্মী নিহত হয়েছেন। এ ছাড়া গত বৃহস্পতিবার ওই শরণার্থী শিবিরে খাবার দিতে এসেছিল স্বেচ্ছাসেবকদের একটি দল। হামলায় স্বেচ্ছাসেবকদের অনেকে আহত হয়েছেন।

মেতিজেভিচ বলেন, ‘আমাদের যেসব সহকর্মী নিহত হয়েছেন, তাদের পরিবার ও প্রিয়জনদের নিয়েই এখন আমাদের চিন্তা।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement