Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

বিসমিল্লাহ লেখা ব্যাগ, পোস্টার বা কার্ড কীভাবে সংরক্ষণ করব?

২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:০৪

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২৩৫২তম পর্বে বিসমিল্লাহ লেখা ব্যাগ, পোস্টার বা কার্ড কীভাবে সংরক্ষণ করা যাবে, সে বিষয়ে মেইলে জানতে চেয়েছেন জান্নাতুল ফেরদৌস। অনুলিখন করেছেন জান্নাত আরা পাপিয়া।

প্রশ্ন : আমাদের চারপাশে পোস্টার, শপিং ব্যাগ, কার্ডসহ বিভিন্ন জায়গায় বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম লেখা থাকতে দেখা যায়। বিভিন্ন দিবসে দেশের বরেণ্য ব্যক্তিদের বক্তব্য সংবলিত ক্রোড়পত্রে উক্ত পবিত্র বাক্যটি আরবিতে লেখা দেখা যায়। পরে পোস্টার, পত্রিকা, শপিং ব্যাগ, কার্ডগুলো বিশেষভাবে সংরক্ষণ করা তো হয়ই না, অনেক সময় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এই রকম শপিং ব্যাগ, পত্রিকা বা কার্ড আমাদের কাছে আসলে করণীয় কী?

উত্তর : আমরা জানি বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম কোরআনে কারিমের একটি আয়াতের অংশ। বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম যদি আপনার কাছে আসে, তাহলে আপনি এটাকে সম্মানিত স্থানে রেখে দেবেন। এ ধরনের জিনিসগুলো ডাস্টবিনে অথবা অবহেলা বা পদদলিত করা হয়, ওই সব জায়গায় নিক্ষেপ করা অনৈতিক কাজ।

পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গাতে আমরা দেখতে পাই যে ডাস্টবিনের পাশে আরেকটি বিন থাকে, সেটিতে লেখা থাকে সম্মান যুক্ত কাগজ ফেলুন। সেখান থেকে পরে কাগজ তুলে নিয়ে তারা পুরিয়ে ফেলবে বা সংগ্রহ করবে। কোরআনের কোনো আয়াত বা আল্লাহর কোনো নাম যদি কোনো ব্যক্তির দৃষ্টিতে পরে, তাহলে এটাকে কোনোভাবে যাতে আবমাননা করা না হয় সেদিকে তিনি লক্ষ রাখবেন।

এই সমস্ত ক্ষেত্রে উচিত হলো কোরআনের আরবি আয়াত ব্যবহার না করা বরং, তিনি বাংলায় অনুবাদ করে ব্যবহার করতে পারেন। বাংলায় বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম উল্লেখ করতে পারেন। যে সমস্ত বিষয়গুলোকে আমাদের সম্মান দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া আছে, সেগুলোকে এই ক্ষেত্রে ব্যবহার করা জায়েজ নেই। ওলামায়ে কেরাম বলেছেন, জ্ঞানকে তুচ্ছ করা, অসম্মান করা জায়েজ নেই। এটি করা উচিত নয়।

Advertisement