Beta

আপনার জিজ্ঞাসা

সুন্নতে খাতনায় অনুষ্ঠান করা যাবে?

২০ জুলাই ২০১৮, ১০:৫৬

অনলাইন ডেস্ক

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দর্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. আবুল কালাম আজাদ।

আপনার জিজ্ঞাসার ২১৩‌৮তম পর্বে ছেলের সুন্নতে খাতনায় অনুষ্ঠান করা যাবে কি না, সে সম্পর্কে ই-মেইলে জানতে চেয়েছেন মাশহুক। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : ছেলের সুন্নতে খাতনায় অনুষ্ঠান করা যাবে কি? উপহার দেওয়া যাবে কি?

উত্তর : খাতনা সুন্নাহ। কিন্তু এখানে কোনো অনুষ্ঠান ইসলামে নেই। আমরা তো আনন্দ করতে করতে সব জায়গায় আনন্দ খুঁজে বেড়াচ্ছি। আকিকার সঙ্গে সঙ্গে খাতনায়ও অনুষ্ঠান করতে চলে যাই। অনুষ্ঠান করতে পারলেই যেন আমরা আলাদা মজা পাই। অথচ এখানকার যে ফরজটা, সেটা অনেক সময়ই অপচয়ে রূপ নেয়। এর চেয়ে গরিবদের দান করলেও কিন্তু সওয়াব বেশি হতো।

ইসলামে খাতনার কোনো সুন্নাহ অনুষ্ঠান নেই, এমনকি আকিকাতেও একই কথা। আলাদা করে কোনো সুন্নাহ অনুষ্ঠান নেই, ইসলামে এটি ছিল না যে লোকজনদের দাওয়াত দিয়ে সেখানে অনুষ্ঠান করতে হবে।

সুতরাং, এই অনুষ্ঠানগুলো পরিহার করাই শ্রেয়। আকিকাতে যে ছেলের জন্য দুইটা বকরি, মেয়ের জন্য একটা বকরি জবাই করা হয়, সেই বকরি নিজেরা খাবে, অন্যদের খাওয়াবে তাতে কোনো অসুবিধা নেই। কিন্তু এখন সেটা অনুষ্ঠানে রূপ নিয়েছে। আনুষ্ঠানিকতা এ ক্ষেত্রে বাহুল্য। আবার এই অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় উপহারও নিয়ে যেতে হবে, নয়তো দাওয়াতকারী কিছু মনে করবে, এমনটাও ঘটে থাকে। এই যে আকিকা এবং খাতনায় কিছু একটা নিয়ে আসা, এটা কিন্তু একটা পর্যায়ে লজ্জায়ও রূপ নেয়। অনেক সময় দেখা যায়, উপহার দেওয়ার সামর্থ্য না থাকায় সে অনুষ্ঠানেও অনেকে আসেন না। এটি একদিকে সমস্যার সৃষ্টি করে, আবার বাড়াবাড়িও হয়ে যায়। এই জন্য এটির প্রয়োজন নেই। সুন্নতে খাতনা করবেন আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement