Beta

ডেঙ্গুতে মারা গেল আড়াই বছরের শিশু

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:১৮

নিজস্ব সংবাদদাতা

রাজধানীতে ডেঙ্গুতে মারা গেল আড়াই বছরের শিশু খাদিজা আক্তার। আজ বুধবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় খাদিজা। ওর নিথর শরীরটা কোলে তুলে নেন নানা দাদন ফকির। তিনি জানালেন, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মুগদা জেনারেল হাসপাতালে আছেন খাদিজার বাবা ইসমাইল হোসেন।

আজ বুধবার বিকাল পাঁচটার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারে (ওসেক) মারা যায় শিশু খাদিজা। খাদিজার মায়ের নাম শিউলি। ইসমাইল আর শিউলির একমাত্র সন্তান ছিল খাদিজা।

খাদিজার নানা দাদন ফকির জানান, তাঁদের বাসা কদমতলি ধনিয়ার নাসির উদ্দিন রোডে। গত ৫ সেপ্টেম্বর খাদিজা জ্বরে আক্রান্ত হয়। ৮ সেপ্টেম্বর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। এদিকে গত ৬ সেপ্টেম্বর খাদিজার বাবা ইসমাইলের জ্বর হয়। ইসমাইলকে গত ৯ সেপ্টেম্বর মুগদা হাসপাতালে ভর্তি  করা হয়।

তিনি আরো জানান, মুগদা হাসপাতালে ভর্তি করার পরই খাদিজার ডেঙ্গু ধরা পরে। ধীরে ধীরে তার অবস্থা খারাপ হতে থাকে। সকাল থেকে গলা ফুলে যায়। চিকিৎসকরা জানান শিশুটির আইসিইউ লাগবে। দ্রুত তাকে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে জরুরি বিভাগেই মারা যায় খাদিজা।

একমাত্র মেয়েকে হারিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন মা শিউলি আক্তার। দেখা গেল নানা দাদন ফকিরের কাধে লাশ হয়ে শুয়ে আছে শিশু খাদিজা। দেখে মনে হচ্ছে নানার কাঁধে মাথা রেখে ঘুমিয়ে আছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত ৪৯ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে। বর্তমানে ২৭৬ জন রোগী ভর্তি আছে।

Advertisement