Beta

সাধারণ মানুষ ঐক্যবদ্ধ হলে আ.লীগ, বিএনপির ‘হ্যাডাম’ থাকবে না : ডাকসু ভিপি

০৩ জুন ২০১৯, ১১:৪১

কাজল বরণ দাস, পটুয়াখালী
ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরকে পটুয়াখালীর চরবিশ্বাসবাসী গণসংবর্ধনা দেয়। ছবি : এনটিভি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, সাধারণ মানুষকে জাগতে হবে, বৈষম্য নিয়ে কথা বলতে হবে। কারণ, সাধারণ মানুষ ঐক্যবদ্ধ হলে আওয়ামী লীগ আর বিএনপির কোনো হ্যাডাম থাকবে না।

ডাকসুর ভিপি নির্বাচিত হওয়ার পর রোববার সকালে প্রথমবারের মতো নিজ গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর চরবিশ্বাস সফরকালে এলাকাবাসীর দেওয়া গণসংবর্ধনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নুরুল হক নুর।

দেশের কৃষকসমাজের দুরবস্থার কথা তুলে ধরে ডাকসুর ভিপি নুর বলেন, কৃষক (ফসলের) ন্যায্যমূল্য পাচ্ছেন না। কৃষকরা এখন কৃষিকাজ ছেড়ে দিতে চাচ্ছেন। তাঁদের পাশে আওয়ামী লীগ কিংবা বিএনপি কেউই দাঁড়াচ্ছে না।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ডাকসু ভিপিকে ‘ছাত্রবন্ধু’ ও দেশের ‘আশার আলো’ বলে অভিহিত করেন বক্তারা। এ সময় তাঁকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

এদিকে, ছাত্র রাজনীতিতে নুরুল হক নুরের আশাতীত সাফল্যের কারণে তাঁকে একনজর দেখতে তীব্র গরম ও কাঠফাটা রোদ উপেক্ষা করে অনুষ্ঠানে ভিড় করে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার হাজার হাজার মানুষ।

চরবিশ্বাস বাজার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান রাজা মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নুরের বাবা মো. ইদ্রিস হাওলাদার ও তাঁর সফরসঙ্গী ঢাকা কলেজের ছাত্র মো. রাকিবুল ইসলাম, মো. জাহিদ হোসেন, সরকারি বাঙলা কলেজের ছাত্র মো. রিয়াদ হোসেন ও কাজী নজরুল ইসলাম কলেজের ছাত্র মো. ফরহাদ হোসেন।

এর আগে রোববার ভোরে লঞ্চে করে ঢাকা থেকে পটুয়াখালীর চরকাজল টার্মিনালে পৌঁছান নুর। সে সময় তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নেন এলাকাবাসী। পরে সেখান থেকে বিশাল এক মোটরসাইকেল শোভাযাত্রার মাধ্যমে নুর নিজ এলাকা চরবিশ্বাসে পৌঁছান।

এদিকে বিভিন্ন মহল থেকে ডাকসু ভিপিকে নিজ এলাকায় সফরে বাধা প্রদানের ইঙ্গিত থাকলেও শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বিঘ্নে নিজ এলাকায় প্রবেশ করেন।

Advertisement