Beta

নেত্রকোনায় ঝড়ে ছয় শতাধিক ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত

০৯ মে ২০১৯, ২০:১১ | আপডেট: ০৯ মে ২০১৯, ২০:১৯

নেত্রকোনা সদর ও আটপাড়া উপজেলায় বয়ে যাওয়া ঝড়ে ছয় শতাধিক কাঁচা, আধাপাকা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। ভেঙে পড়েছে সহস্রাধিক গাছপালা। এ সময় আটপাড়া উপজেলার স্বরমুশিয়া ইউনিয়নের গাঘড়া গ্রামে ঘরের নিচে চাপা পড়ে ১০ জন আহত হয়েছে। ঝড়ের পর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে।  

স্বরমুশিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. আব্দুস ছাত্তার জানান, ইউনিয়নের ১৪টি গ্রামের ওপর দিয়ে বুধবার গভীর রাতে ঝড় বয়ে যায়। ঝড়ে ইউনিয়নের ১৪টি গ্রামের পাঁচ শতাধিক কাঁচা, আধাপাকা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়। সহস্রাধিক গাছ এবং বিদ্যুতের খুঁটি উপরে ও ভেঙে পড়ে।

ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাবাসী জানায়, স্বরমুশিয়া ইউনিয়নের কুনাপাড়া, গাঘড়া, নয়াপাড়া, রূপচন্দ্রপুর, সুতারপুর, ভবানীপুর, মোস্তফাপুর, দৈড়াবক্স আইমাসহ ১৪টি গ্রামে ঝড়ে বাজারের কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫টি দোকান, টিনের চালা ঘরসহ পাঁচ শতাধিক কাঁচা ও আধাপাকা ঘর বিধ্বস্ত হয়। ঝড়ে সহস্রাধিক ফলদ ও বনজ গাছ এবং বিদ্যুতের খুঁটি উপরে ও ভেঙে পড়ে। ঝড়ের সময় ঘর ও গাছের নিচে চাপা পড়ে এক বৃদ্ধাসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। ঝড়ের পর থেকে ওই এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

এ ছাড়া জেলা সদরের মদনপুর ইউনিয়নের নরেন্দ্রপুর ও আমতলা ইউনিয়নের পাঁচকাহানিয়া এলাকায় ঝড়ে বিধ্বস্ত হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে শতাধিক ঘড়বাড়ি ও গাছপালা।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসক মঈন-উল ইসলাম, আটপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি খায়রুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুদা আক্তার, ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুস ছাত্তার ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন।

Advertisement