Beta

পুলিশের দাবি

মা-নানিকে কুপিয়ে চাল খুলে পালাল মাদকাসক্ত

২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১০:১৮ | আপডেট: ২৬ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৩২

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নওদাগ্রামে গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে মা ও মেয়েকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ছবি : এনটিভি

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় মা ও মেয়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধারণা করা হচ্ছে, তাঁদের কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার নওদাগ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

তাঁরা হলেন মহেশপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ল্যাব টেকনিশিয়ান মর্জিনা খাতুন (৪৫) ও তাঁর মা সামছুন্নাহার (৮০)। মর্জিনা স্বামী পরিত্যক্ত। তিনি তাঁর ছেলে ইমরান হোসেনকে (২৭) নিয়ে মায়ের বাড়িতেই থাকতেন।

পুলিশ দাবি করেছে, ইমরান মাদকাসক্ত। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি মা ও নানিকে কুপিয়ে হত্যার পর পালিয়ে গেছেন। 

মহেশপুর পৌরসভার মেয়র আবদুর রশিদ খান ও মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদুল আলম দাবি করেন, ধারণা করা হচ্ছে, রাত ২টার দিকে মা ও নানিকে নির্মমভাবে কুপিয়ে আহত করে মাদকাসক্ত ইমরান ঘরের টালির চালা খুলে পালিয়ে যায়। পরে প্রতিবেশী ও স্থানীয় লোকজন মুমূর্ষু অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করে রাত ৪টার দিকে যশোর হাসপাতালে নিয়ে যান।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন। কী কারণে হত্যার ঘটনা ঘটেছে, তা নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি পুলিশ।

সকালে এ খবর ছড়িয়ে পড়লে মহেশপুর পৌরসভার মেয়রসহ এলাকার শত শত মানুষ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। লাশ যশোর সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।

Advertisement