Beta

সুপ্রভাত পরিবহন চলাচলের অনুমতি চেয়ে চিঠি নিষ্পত্তির নির্দেশ

১৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:৩২

নিজস্ব প্রতিবেদক
গত ১৯ মার্চ যমুনা ফিউচার পার্কের সামনের সড়কে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসে বহিরাগতরা আগুন ধরিয়ে দিলে শিক্ষার্থীরা পানি দিয়ে তা নেভানোর চেষ্টা করেন। পুরোনো ছবি : এনটিভি

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীর নিহতের জের ধরে বন্ধ হওয়া সুপ্রভাত পরিবহনের ১৬৩টি বাস চলাচলের অনুমতি চেয়ে বিআরটিএর চেয়ারম্যানকে দেওয়া চিঠি ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এ বিষয়ে দায়ের করা রিট নিষ্পত্তি করে আজ মঙ্গলবার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আবু ইয়াহিয়া দুলাল।

এর আগে গত ২০ মার্চ রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে প্রগতি সরণিতে বিইউপির শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরীর নিহতের ঘটনায় রাজধানীতে সুপ্রভাত পরিবহনের সব বাস ও মিনিবাস চলাচল বন্ধের নির্দেশ দেয় বিআরটিএ।

পরে গত ১ এপ্রিল সুপ্রভাত পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. আশরাফ আলী ১৬৩টি বাস রাস্তায় চলাচলের অনুমতি চেয়ে বিআরটিএকে চিঠি দেয়। চিঠির কোনো জবাব না পেয়ে গত ৮ এপ্রিল ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বাসগুলোকে চলাচলের অনুমতি দিতে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। কিন্তু এরপরও অনুমতি না দেওয়ায় গতকাল হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রভাতের এমডি আশরাফ আলী।

রিটের শুনানি নিয়ে চলাচলের অনুমতি চেয়ে দেওয়া চিঠি বিআরটিএকে ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিলেন হাইকোর্ট।

গত ১৯ মার্চ সকাল ৭টার দিকে রাজধানীর যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে প্রগতি সরণি এলাকায় সুপ্রভাত পরিবহনের বাসের (ঢাকা-মেট্রো-ব-১১-৪১৩৫) চাপায় বিইউপি শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহত হন। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনের মুখে সুপ্রভাতের বাস চলাচল বন্ধ করা হয়।

Advertisement