Beta

বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৪২ | আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৮, ২০:৪০

ফেনী সদর উপজেলায় লেমুয়ায় আজ শুক্রবার বিকেলে বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। ছবি : এনটিভি

ফেনী সদর উপজেলায় বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষে ছয়জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে পাঁচজন একই পরিবারের সদস্য। এ সময় আহত হয়েছেন আরো দুজন।

আজ শুক্রবার বিকেল সোয়া ৫টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার লেমুয়া এলাকায় শ্যামলী পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ফেনী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাশেদ চৌধুরী বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- অটোরিকশাচালক রুহুল আমিন (৫০), একই পরিবারের সদস্য নাসিমা আক্তার (৪০), অন্তসত্ত্বা সালমা আক্তার (২০), সাহাদাত হোসেন (২৫), নাসির উদ্দিন (২৬) ও দেলওয়ার  হোসেন (২০)। এঁদের বাড়ি জেলার সোনাগাজী উপজেলার নবাবপুরে।

পরিবারের আরো দুই সদস্য সুমি আক্তার (২৫) এবং শিশু আরাফাত (৩) ফেনী সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, একই পরিবারের সাত সদস্য সিএনজিচালিত অটোরিকশায় করে ফেনী শহরের সহদেবপুরের এক আত্মীয় বাড়িতে ঈদের দাওয়াত খেয়ে নিজেদের বাড়ি সোনাগাজীর নবাবপুরে ফিরছিলেন। পথে হাইওয়ে পুলিশ অটোরিকশাটিকে থামার নির্দেশ দেয়। কিন্তু চালক সেটি না মেনে দ্রুত উল্টোদিকে ঘুরিয়ে পুলিশের হাত থেকে বাঁচার চেষ্টা করে।

এ সময় পেছনে থাকা ঢাকা থেকে চট্টগ্রামগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস অটোরিকশাটিকে চাপা দেয়। জনতা বাসটিকে আটক করলেও চালক পালিয়ে গেছেন বলে জানায় পুলিশ।

আহতদের উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ছয়জনকে মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement