Beta

বাঘাইছড়িতে জেএসএস এমএন লারমার কর্মীকে গুলি করে হত্যা

২৬ জুলাই ২০১৮, ২২:২৫

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় নিহত বন কুসুম চাকমা। ছবি : এনটিভি

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় প্রতিপক্ষের গুলিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) এক কর্মী নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত ব্যক্তির নাম বন কুসুম চাকমা (৩০)। তিনি একই উপজেলার বেতাগিছড়া গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় একাধিক সূত্র নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, বাঘাইছড়ি উপজেলার রূপকারী ইউনিয়নের দাঙ্গাছড়া গ্রামে বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে আঞ্চলিক দুই দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) ও জেএসএস এমএন লারমার মধ্যে ঘণ্টাব্যাপী গুলি বিনিময় হয়। বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত ও অন্তত দুজন আহত হয় বলে জানা গেছে। তবে আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এ ঘটনায় ইউপিডিএফকে দায়ী করেছে জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা। তবে ইউপিডিএফ তা অস্বীকার করেছে।

নিহতের সত্যতা নিশ্চিত করে বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, বাঘাইছড়ি উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের বেতাগিছড়া গ্রামে প্রতিপক্ষের সঙ্গে গোলাগুলিতে জেএসএস সংস্কারপন্থীদের এক সদস্য নিহতের খবর পেয়েছি। আমরা ঘটনাস্থলে যাচ্ছি। পরে বিস্তারিত জানা যাবে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) বাঘাইছড়ি উপজেলার সাধারণ সম্পাদক জ্ঞানজীব চাকমা জানান, নিহত বন কুসুম চাকমা একজন সাধারণ মানুষ। ইউপিডিএফের সন্ত্রাসীরা তাঁকে গুলি করে মেরে ফেলেছে। কোনো বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা নয়, ইউপিডিএফের সন্ত্রাসী হামলায় বন কুসুম চাকমা নিহত হয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা বলেন, এটা তাদের নিজেদের অন্তর্দলীয় কোন্দল হতে পারে। এ ঘটনার সঙ্গে ইউপিডিএফের সম্পৃক্ততা নেই।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement