Beta

সোনালী ব্যাংকের প্রহরীর লাশ ফেলে গেছে, পাশে কালো ব্যাগ

২৫ জুলাই ২০১৮, ২৩:১৭

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকায় আজ বুধবার সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের নিরাপত্তা প্রহরী আবদুল মান্নানের লাশ পাওয়া যায়। ছবি : এনটিভি

রাজধানীর মতিঝিলের সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের নিরাপত্তা প্রহরী আবদুল মান্নানের লাশ পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আজ বুধবার বেলা ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকায় ঢাকাগামী একটি মাইক্রোবাস থেকে লাশটি রাস্তায় ফেলে যাওয়া হয়। পাশে ফেলে যাওয়া হয় কালো রঙের একটি ব্যাগ।

পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এ সময় আবদুল মান্নানের চোখ সাদা রঙের টেপ দিয়ে মোড়ানো ছিল। চোখে ছিল কালো সানগ্লাস।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানান, আজ সকালে ঢাকামুখী একটি মাইক্রোবাস থেকে সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক স্যামস ফিলিং স্টেশনের পাশে লাশটি ফেলা যাওয়া হয়। সঙ্গে একটি কালো রঙের ব্যাগও ছিল।

লাশের সঙ্গে থাকা পরিচয়পত্র থেকে জানা যায়, নিহত ব্যক্তি সোনালী ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের নিরাপত্তা প্রহরীর দায়িত্বে কর্মরত ছিলেন। পরিচয়পত্রের তথ্যানুযায়ী, তিনি কুমিল্লার বড়ুরা উপজেলার কিষানপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুস সাত্তার বলেন, ‘লাশ ফেলে যাওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। কারা তাঁকে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে গেছে, সে ব্যাপারে আমরা তদন্ত শুরু করেছি। নিহতের সঙ্গে থাকা পরিচয়পত্র দেখে তাঁর পরিচয় শনাক্ত করতে পেরেছি। কুমিল্লায় তাঁর স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এলে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নারায়ণগঞ্জ সদরের ‘ক’ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী জানান, বিভিন্ন স্থানে লাগানো সিসি টিভির ভিডিও ফুটেজ দেখে লাশ ফেলে যাওয়া দুর্বৃত্তদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement