Beta

৩৫০ গুলিসহ ‘ইউপিডিএফ সমর্থক’ আটক

২৩ এপ্রিল ২০১৮, ২৩:৩৭

খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা উপজেলায় অভিযান চালিয়ে ৩৫০ রাউন্ড গুলি, মোবাইল ফোনের ভারতীয় সিমকার্ডসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আজ সোমবার এ অভিযান চালানো হয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে, কবাখালি ইউনিয়নের কৃপাপুর এলাকায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) এক কর্মীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সাড়ে তিনশো রাউন্ড গুলিসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে  সুপ্রিয় চাকমা  নামে ইউপিডিএফের এক সমর্থককে আটক করা হয়েছে। দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সামসুদ্দিন ভূঁইয়া অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার কবাখালি ইউনিয়নের কৃপাপুর ডাঙ্গাবাজারের পাশে প্রীতিবিকাশ চাকমা ওরফে ডা. প্রীতির (৪০) বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ঘরের মেঝের মাটি খুঁড়ে গর্ত থেকে এই বিপুল পরিমাণ গুলি ও সামরিক সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। যৌথবাহিনী আসছে দেখে  প্রীতি বিকাশ চাকমা পালিয়ে গেলেও  ঘটনাস্থল থেকে সুপ্রিয় চাকমাকে আটক করা হয়। 

উদ্ধারকৃত গুলির মধ্যে রয়েছে, এসএমজি/এলএমজির গুলি ১৫৬ রাউন্ড, এমজির গুলি ৯০ রাউন্ড এবং নাইন এমএম পিস্তলের গুলি ১০৪ রাউন্ড। এছাড়া তিনটি ওয়ারলেস সেটের অ্যান্টেনা, একটি রাম দা, ভিসা কার্ড, মাস্টার কার্ড, ভারতীয় সিমকার্ড, মোবাইল ফোন এবং ইউপিডিএফের বই।

দীঘিনালা জোনের অধিনায়ক লে. কর্ণেল ফেরদৌস মাহমুদ জিয়া উদ্দিন জানান, গোয়েন্দা তথ্যে জানতে পারেন প্রীতি বিকাশ চাকমা আঞ্চলিক সংগঠন ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ, প্রসিত) স্বশস্ত্র  গ্রুপের  একজন সহযোগী।  প্রীতি চিকিসক হওয়ায় ইউপিডিএফের আহত রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে থাকে। ইউপিডিএফ নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে তাঁর ঘরে গুলিসহ সরঞ্জাম মজুদ রাখে। তল্লাশির সময় তাঁর ঘরে মাটির নিচে প্লাষ্টিকের কৌটায় রাখা অবস্থায় গুলি ও অ্যান্টেনা উদ্ধার করা হয়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement