Beta

নেতৃত্বের দায়িত্ব চাপছে মাহমুদউল্লাহ বা তামিমের কাঁধে

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:১৪

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রধান কোচ ছাড়াই চলছে টি-টোয়েন্টিতে লঙ্কা-বধের প্রস্তুতি। কোচ ছাড়াও বাংলাদেশ ভুগছে নিয়মিত অধিনায়কের অভাবে। চোটের কারণে টেস্টের মতো টি-টোয়েন্টিতেও থাকছেন না বাংলাদেশ দলপতি সাকিব আল হাসান। এমন পরিস্থিতিতে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্বের দায়িত্বটা দেওয়া হতে পারে টেস্টে সাকিবেরই ডেপুটি মাহমুদউল্লাহ কিংবা তামিম ইকবালকে—বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা কমিটির প্রধান আকরাম খান জানিয়েছেন তেমনটাই। 

চোটাক্রান্ত সাকিবের আঙুলের সেলাই টি-টোয়েন্টির আগে কাটলেও ক্ষতস্থান সারতে সারতে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সময় লেগে যাবে সপ্তাহখানেক। ফলে লঙ্কানদের বিপক্ষে সিরিজের দুই টি-টোয়েন্টির লড়াইয়ে থাকছেন না সাকিব, এমনটা নিশ্চিত। 

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালনা কমিটির সভায় সাকিবের বদলি হিসেবে উঠে এসেছে দুটি নাম—মাহমুদউল্লাহ ও তামিম ইকবাল। ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ থেকেই প্রস্তাব করা হয়েছে এ দুই জ্যেষ্ঠ ক্রিকেটারের নাম। সভা শেষে এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান।

সাকিবের বদলে মাহমুদউল্লাহই বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন টেস্টে।  তাই নেতৃত্বের ভারটা ডানহাতি এই অলরাউন্ডারের ওপরে যাওয়ার সম্ভাবনাটাই বেশি। সিরিজের প্রথম টেস্ট এই মাহমুদউল্লাহর নেতৃত্বেই ড্র করেছিল বাংলাদেশ। যদিও দ্বিতীয় টেস্টে হেরে ১-০ ব্যবধানে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ খোয়াতে হয় টাইগারদের। এ ছাড়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) খুলনা টাইটানসের হয়ে মাহমুদউল্লাহর অধিনায়কত্বও নজর কেড়েছে সবার। এক টেস্টে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেওয়া তামিম ইকবালও বিপিএলের মঞ্চে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস ও চিটাগাং ভাইকিংস—দুটি দলেরই অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। 

ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল ম্যাচে বল ধরতে গিয়ে কনিষ্ঠা আঙুল ফেটে যায় সাকিব আল হাসানের। পরে আঙুলে করা হয় সেলাইও। সেই থেকেই দলের বাইরে আছেন সাকিব। অংশ নিতে পারেননি সিরিজের দুই টেস্টেও।

Advertisement
0.95522212982178