Beta

বোল্টও হারতে জানেন!

০৬ আগস্ট ২০১৭, ০৮:৩৮

স্পোর্টস ডেস্ক

১০০ বা ২০০ মিটার দৌড়ের কোনো ইভেন্টে উসাইন বোল্ট অংশ নিলে সবাই যেন অ্যাথলেটিকস ট্র্যাকে নামেন দ্বিতীয় স্থানটির জন্য। দীর্ঘদিন ধরেই দেখা যাচ্ছে এমন চিত্র। অতিমানবীয় গতি দিয়ে কাউকেই কাছে ঘেঁষতে দেন না বোল্ট। কিন্তু তিনিও যে মানুষ, আর মাঝেমধ্যে যে তাঁকেও হারের স্বাদ পেতে হয়, সেটাই যেন বিদায়বেলা স্মরণ করিয়ে দিয়ে গেলেন জ্যামাইকান এই অ্যাথলেট। নিজের বর্ণিল ক্যারিয়ারের শেষ বড় প্রতিযোগিতায় বোল্ট হেরে গেলেন জাস্টিন গ্যাটলিনের কাছে। পূরণ হলো না ১০০ মিটার ইভেন্টে টানা তৃতীয়বারের মতো স্বর্ণ জয়ের স্বপ্ন।

দু-দুবার ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়ানো গ্যাটলিন যে বোল্টকে এভাবে পেছনে ফেলে দিতে পারবেন, তা হয়তো খুব বেশি মানুষের কল্পনায় ছিল না। দীর্ঘ ১২ বছর পর ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের ১০০ মিটার দৌড়ের স্বর্ণ জিতেছেন গ্যাটলিন। ফিনিশিং লাইন ছুঁয়েছেন ৯.৯২ সেকেন্ডে। বোল্ট এমনকি দ্বিতীয়ও হতে পারেননি। ৯.৯৫ সেকেন্ডের টাইমিংয়ে তৃতীয় হয়েছেন বিশ্বের দ্রুততম মানব। দ্বিতীয় স্থানে থেকে রৌপ্যপদক জিতেছেন গ্যাটলিনেরই স্বদেশি, আমেরিকান অ্যাথলেট ক্রিস্টিয়ান কোলম্যান।

২০০৯ সালে বার্লিনে অনুষ্ঠিত বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে জোড়া রেকর্ড গড়েছিলেন বোল্ট। ১০০ ও ২০০ মিটার ইভেন্টে সেরা টাইমিংয়ের যে রেকর্ড এখনো আছে বোল্টেরই দখলে। তারপর ২০১১, ২০১৩ ও ২০১৫ সালেও বোল্ট ছিলেন অপ্রতিরোধ্য। ২০১১ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপে ফলস স্টার্টিংয়ের কারণে বোল্ট বাদ পড়েছিলেন ১০০ মিটারের ইভেন্ট থেকে। স্বর্ণপদক জিতেছিলেন ২০০ ও ১X৪০০ মিটার ইভেন্টে। আর গত দুই আসরেই বোল্ট জিতেছিলেন তিনটি ইভেন্টের স্বর্ণপদক।

এ বছরের বিশ্বচ্যাম্পিয়নশিপের পরই অ্যাথলেটিকস জগৎ থেকে বিদায় নেওয়ার কথা উসাইন বোল্টের। বিদায়ী এ আসরে এমন অপ্রত্যাশিত ফল নিশ্চয়ই চাননি সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অ্যাথলেট।

Advertisement
1.0274758338928