Beta

ইরানের সঙ্গে এবার সম্পর্ক ছিন্ন করল সুদান-বাহরাইন

০৪ জানুয়ারি ২০১৬, ২১:২৪

অনলাইন ডেস্ক
শিয়া নেতা শেখ নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের পর বাহরাইনের রাজধানী মানামার রাজপথে বিক্ষোভ শুরু হয়। ছবি : রয়টার্স

সৌদি আরবের পর এবার ইরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করেছে বাহরাইন ও সুদান। আর কূটনৈতিক সম্পর্ক সীমিত করে আনার ঘোষণা দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।  

সৌদি আরবে শিয়া নেতা শেখ নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর নিয়ে চলমান বিরোধের জেরে মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ দেশ বাহরাইন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স। তবে শিয়া নেতার ফাঁসির জেরে চলমান অসন্তোষের মধ্যে এই সম্পর্কচ্ছেদের কারণটা ভিন্ন বলে জানিয়েছে বাহরাইন ও সুদান। 

আজ সোমবার স্থানীয় সময় বেলা ১১টায় বাহরাইনের তথ্যমন্ত্রী ঈসা আল-হামাদি এই সম্পর্কচ্ছেদের ঘোষণা দেন। একই ঘোষণায় ইরানি কূটনীতিকদের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বাহরাইন ছাড়ার নির্দেশও দেন তিনি। 

সম্পর্কচ্ছেদের কারণ হিসেবে হামাদি জানান, গত কিছুদিন ধরেই ইরান নানা বিষয়ে বাহরাইনের ওপর প্রভাব খাটাতে চেষ্টা করছে। এ ছাড়া ইরান পরিচালিত উপসাগরীয় সহযোগিতা পরিষদের (জিসিসি)  হস্তক্ষেপের কারণে তেহরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাহরাইন।

একইভাবে প্রভাব খাটানোর ‘অজুহাত’ দেখিয়ে সম্পর্কচ্ছেদ করেছে আফ্রিকার দেশ সুদানও। অপরদিকে ইরানে চলমান সংঘর্ষের কারণে নিরাপত্তা সমস্যার কথা উল্লেখ করে মধ্যপ্রাচ্যের আরেক তেলসমৃদ্ধ রাষ্ট্র সংযুক্ত আরব আমিরাত।


এর আগে সৌদি আরবে শিয়া ধর্মীয় গুরু শেখ নিমর আল নিমরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের খবরে শিয়া অধ্যুষিত ইরান ও বাহরাইনে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। একপর্যায়ে উত্তেজিত জনতা তেহরানে সৌদি আরবের দূতাবাসে হামলা চালায়। বাহরাইনের রাজধানী মানামার রাজপথেও বিক্ষোভ দেখায় শিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন।

এদিকে আজ সোমবার সকালে দূতাবাসে হামলার প্রতিক্রিয়ায় ইরানের সঙ্গে সব কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দেয় সৌদি আরব। পাশাপাশি নিজেদের দেশের সব কূটনীতিককে ফিরিয়ে আনে তারা।

এর কয়েক ঘণ্টা পরই সৌদি আরবের পদাঙ্ক অনুসরণ করে ইরানের সঙ্গে সব কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের ঘোষণা দেয় বাহরাইন। বাহরাইনের রাষ্ট্রীয় প্রচারমাধ্যমগুলো দাবি করে দেশটির শিয়া জনগোষ্ঠীর মধ্যে সরকারবিরোধী মনোভাবে উসকানি দিচ্ছে ইরান। 

রয়টার্স জানিয়েছে, বাহরাইনের সুন্নি শাসকগোষ্ঠীর সঙ্গে সৌদি আরবের শাসকগোষ্ঠীর সম্পর্ক অনেক আগে থেকেই। সর্বশেষ ২০১১ সালে বাহরাইনের সুন্নি মতাবলম্বী রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে দেশটির সংখ্যাগরিষ্ঠ শিয়া সম্প্রদায়ের লোকজন আন্দোলনে নামলে দেশটির শাসকগোষ্ঠীর সমর্থনে সেনা পাঠায় সৌদি আরব। এই সৌদি সেনাদের সাহায্যেই শিয়াদের ওই আন্দোলনকে কঠোরভাবে দমন করে বাহরাইন সরকার। 

আর সৌদি আরবের সঙ্গে অর্থনৈতিক ও ভূরাজনৈতিক কারণে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও সুদানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement