Beta

অস্ট্রেলিয়ায় সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্তদের সারা জীবনই কাটবে কারাগারে

১১ ডিসেম্বর ২০১৫, ১৫:০২

অনলাইন ডেস্ক
অস্ট্রেলিয়ায় আজ শুক্রবার কাউন্সিল অব অস্ট্রেলিয়ান গভর্নমেন্ট (কোয়াগ) শীর্ষক এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল। ছবি : বিবিসি

অস্ট্রেলিয়ায় সন্ত্রাসবাদে যুক্ত থাকার দায়ে কারাদণ্ডপ্রাপ্তদের মেয়াদ শেষেও মুক্তি না দিয়ে কারাগারেই রাখা হতে পারে। এমনকি সন্ত্রাসবাদীদের সারা জীবনই কারাগারে কাটাতে হতে পারে। বাইরে মুক্ত থাকলে তাঁরা দেশের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হতে পারে বলে দেশটির শীর্ষ পর্যায় থেকে এমন প্রস্তাব করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ার কাউন্সিল অব অস্ট্রেলিয়ান গভর্নমেন্ট (কোয়াগ) শীর্ষক এক বৈঠকে সন্ত্রাসবাদীদের কারাগারে আটকে রাখার বিষয়ে প্রস্তাব করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল। ওই বৈঠকে অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলের স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। টার্নবুল পরে সাংবাদিকদের বলেন, এ প্রস্তাবে স্থানীয় প্রতিনিধিদের যথেষ্ট সমর্থন পাওয়া গেছে।

বিবিসি জানিয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার অনেক রাজ্যেই এরই মধ্যে ‘দণ্ড শেষে কারাগারে রাখা’র বিষয়টি প্রচলিত আছে। যৌন নির্যাতনে অভিযুক্ত ও ভয়ংকর অপরাধীদের ক্ষেত্রে এটি প্রয়োগ করা হয়। এমন অপরাধীরা আবারো অপরাধ ঘটাতে পারে—এ শঙ্কায় তাদের কারাগারে আটকে রাখা হয়। তবে সন্ত্রাসবাদে যুক্ত থাকার দায়ে দণ্ডপ্রাপ্তদের ক্ষেত্রে মেয়াদ শেষে কারাগারে আটকে রাখার কোনো বিধান নেই।

অস্ট্রেলিয়া সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে এমন সময়ে প্রস্তাবটি এলো, যখন সন্ত্রাসবাদে যুক্ত থাকার অভিযোগে ১৫ বছরের এক বালকসহ পাঁচ ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। জনজীবনের জন্য ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ এ দাবি করে গ্রেপ্তারকৃত ১৫ বছর বয়সী কিশোরকেও জামিন দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার আদালত।

অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গ্রেপ্তারকৃতরা বিভিন্ন সরকারি ভবন ও সাধারণ মানুষের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পরিকল্পনা করছিল। কিছু তথ্যের ভিত্তিতে কর্মকর্তারা বলেন, চলতি বছরের একদম শেষ দিকে এ হামলা চালানো হতো বলে ধারণা করা হয়।

Advertisement