Beta

বাংলাদেশি ভক্তের মৃত্যু, বলিউড তারকা শোকার্ত

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:৪৮

অনলাইন ডেস্ক
বাংলাদেশি ভক্ত সাদিয়া মশউদের সঙ্গে আমাল মালিক। ছবি : সংগৃহীত

নিকটজনের মৃত্যু বেশ বেদনাদায়ক। আর নিকটজন হতে হলে যে রক্তের সম্পর্ক থাকতে হবে বা নিকটে অবস্থান করতে হবে, এমন ধরাবাঁধা কোনো নিয়ম তো নেই। দেশ-কাল, ধর্মের গণ্ডি পেরিয়েও তাই কেউ কেউ হয়ে ওঠেন নিকটজন বা কাছের মানুষ। আর তেমনই এক বাংলাদেশি শুভাকাঙ্ক্ষীর মৃত্যুতে বেশ কষ্ট পেয়েছেন বলিউডের নামকরা সংগীত পরিচালক ও গায়ক আমাল মালিক।

বাংলাদেশের নারী সাদিয়া মশউদ। শরীরে ক্যানসার নিয়েই বেঁচে ছিলেন তিনি। সংগীতের প্রতি ছিল তাঁর গভীর ভালোবাসা। আর ভারতের জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক ও গায়ক আমাল মালিকের প্রচণ্ড ভক্ত ছিলেন সাদিয়া। ভারতের মুম্বাইয়ে আমালের একটি শো দেখতে বাংলাদেশ থেকে সেখানে উড়াল দিয়েছিলেন সাদিয়া। শো দেখার পাশাপাশি প্রিয় তারকার সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাও পূরণ হয়েছিল তাঁর। ‘ম্যায় রাহুঁ ইয়া না রাহুঁ’খ্যাত আমাল মালিক সাদিয়ার সঙ্গে বেশ হাসিমুখে ছবিও তুলেছেন। ছবিতে সাদিয়ার হাসি ও চোখেমুখে উচ্ছলতা বলে দেয়, প্রিয় তারকার দেখা পেয়ে কতটা খুশি তিনি।

ক্যানসার আক্রান্ত সাদিয়া গত ১২ সেপ্টেম্বর মারা যান। ভক্তের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে বেশ ব্যথিত হয়েছেন আমাল। সাদিয়ার সঙ্গে ছবিসহ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে আমাল লিখেছেন, ‘সাদিয়া মশউদ, আমরা তোমাকে রক্ষা করতে না পারায় দুঃখিত। আমাকে ক্ষমা করে দিও। ২০১৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর আমার জন্য জীবনের অন্ধকারতম দিন হয়ে থাকবে। সে (সাদিয়া) ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করছিল, কিন্তু আজ সকালে সে মারা গেছে। সে আমার অন্যতম একজন পুরোনো ভক্ত ছিল। ভালোবাসা ও দৃঢ়তার ওপর ভর করে বাংলাদেশ থেকে মুম্বাইতে আমার একটি শো দেখতে এসেছিল সে, যা অবিশ্বাস্য। এটি আমাকে তাঁর ভক্ত করে তুলেছে। তাঁর পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল।’

আট বছর বয়সেই সংগীতে হাতেখড়ি হয় আমাল মালিকের। তিনি পিয়ানো বাজাতেও পছন্দ করেন। ২০১৫ সালে ‘ম্যায় রাহুঁ ইয়া না রাহুঁ’ গানটি তাঁকে ব্যাপক জনপ্রিয়তা এনে দেয়।

Advertisement