Beta

আপনার যৌনস্বাস্থ্যের তথ্য ফেসবুককে জানানো হচ্ছে!

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:৪৫

অনলাইন ডেস্ক

আপনি শেষ কবে যৌন সঙ্গম করেছেন, সে তথ্য বোধ হয় আপনার সবচেয়ে কাছের বন্ধুরও জানার কথা নয়। কিন্তু যদি বলা হয়, আপনার একান্ত ব্যক্তিগত সে তথ্য ঠিকই জানতে পারছে ফেসবুক! চমকে ওঠার মতো এমন কথা জানা গেছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদন থেকে।     

নারীদের ঋতুচক্রের হিসাব রাখার দুটি জনপ্রিয় স্মার্টফোন অ্যাপ্লিকেশন এমআইএ ফেম ও মায়া অনেক দিন ধরেই কয়েক লাখ নারীর যৌনস্বাস্থ্যের তথ্য ফেসবুককে জানিয়ে আসছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে অ্যাপ দুটি ব্যবহারকারী নারীরা স্বতঃপ্রণোদিত হয়েই এসব তথ্য অ্যাপে সংরক্ষণ করেছেন। এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে, ওই নারী শেষ কবে সঙ্গম করেছেন, তিনি কী ধরনের জন্মনিরোধক ব্যবহার করেন, তাঁর মন-মেজাজের কী অবস্থা কিংবা মাসিক ঋতুচক্রের কোন অবস্থায় রয়েছেন ইত্যাদি। যুক্তরাজ্যভিত্তিক গবেষণা সংস্থা প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনালের এক সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। 

মানুষের একান্ত ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করে চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠান, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি বা বিজ্ঞাপনদাতারা ফায়দা লুটতে পারবেন কি না—এমন প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে এই প্রতিবেদন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেসবুক সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কিটের মাধ্যমে এসব তথ্য ফেসবুককে জানাত অ্যাপ দুটি। এ ছাড়া প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, কোনো ব্যবহারকারী অ্যাপ দুটি তাঁর স্মার্টফোনে ইন্সটল করে চালু করার সঙ্গে সঙ্গেই ফেসবুকের কাছে তথ্য চলে যেত। এ ক্ষেত্রে ব্যবহারকারী তাঁর ব্যক্তিগত তথ্য ফেসবুককে জানাতে চান কি না, সে প্রাইভেসি পলিসি সাইন করার আগেই অ্যাপ দুটি ফেসবুককে ওই ব্যক্তির তথ্য জানিয়ে দিত।

এদিকে এ বিষয়ে ফেসবুকের মুখপাত্র জো অসবর্ন জানান, এমআইএ ফেম ও মায়া অ্যাপের শেয়ার করা স্পর্শকাতর স্বাস্থ্য-সম্পর্কিত তথ্য বিজ্ঞাপনদাতাদের জানার কোনো সুযোগ নেই।

সম্প্রতি নতুন একটি অ্যাপ এনেছে ফেসবুক। নতুন অ্যাপটির নাম স্টাডি। এই অ্যাপ থেকে গ্রাহকের বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করবে ফেসবুক। যেমন, গ্রাহক কতক্ষণ তাঁর ফোন ব্যবহার করেন, কোন অ্যাপ কত সময় ব্যবহার করেন, কোন দেশ থেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করা হচ্ছে ইত্যাদি তথ্য সংগ্রহ করবে ফেসবুকের স্টাডি অ্যাপ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ওয়ান ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

তবে ব্যবহারকারীর পাসওয়ার্ড কিংবা তিনি কোন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করছেন, তা জানবে না স্টাডি অ্যাপ। যেসব গ্রাহকের কাছে এরই মধ্যে ফেসবুক স্টাডি অ্যাপ প্রোগ্রামে অংশ নেওয়ার আমন্ত্রণ পৌঁছেছে, তাঁরাই কেবল স্টাডি অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারবেন। অ্যাপ ইনস্টল করার সময় ব্যবহারকারীকে বিভিন্ন অনুমতি দিতে হবে। তবে যেকোনো সময় এই অ্যাপ আনইনস্টল করে এই প্রোগ্রাম থেকে বেরিয়ে যাওয়া যাবে।

এ ছাড়া নিজস্ব ডিজিটাল মুদ্রা বা ক্রিপ্টোকারেন্সি আনার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক। এই ক্রিপ্টোকারেন্সির নাম দেওয়া হয়েছে ‘লিবরা’। এরই মধ্যে একাধিক বিনিয়োগকারীর সঙ্গে এই প্রকল্প সম্পর্কে বৈঠক করেছে ফেসবুক।

Advertisement